রবিবার ২৬ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

কিশোর-কিশোরীর বিয়ে ঠেকাল পুলিশ

সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৮ | ৭:০৮ অপরাহ্ণ

।। ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট ।।

বিজ্ঞাপন

বগুড়া : বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার ছাগলধরা গ্রামের মনির মন্ডলের মেয়ে সুমাইয়া আক্তার। স্থানীয় দাখিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে ১৪ বছরের এই কিশোরী।

সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাতে এই কিশোরীর বিয়ের দিন ঠিক করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

যার সঙ্গে বিয়ে তার নাম মনির ইসলাম। কুতুবপুর ইউনিয়নের মাছিরপাড়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের ১৮ বছর বয়সী কিশোর ছেলে মনিরের সঙ্গেই বিয়ে ঠিক হয়েছিল সুমাইয়ার।

যেহেতু বরে-কনে দুজনের কারোরই আইন অনুযায়ী বিয়ের বয়স হয়নি, তাই গোপনে চলছিল এই বিয়ের প্রস্তুতি। তবে খবরটি ঠিকই পৌঁছে যায় সারিয়াকান্দি থানা পুলিশের কাছে।

খবর পেয়ে বিয়ের আসরে পৌঁছে যান পুলিশ সদস্যরা। বর-কনেকে তাদের অভিভাবকসহ আটক করে থানায় নেওয়া হয়। তাদের বুঝিয়ে বলা হয় বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে। নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার বিষয়ে মুচলেকা দেন দুই পরিবারের সদস্যরা। এরপর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

এসময় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজনীন আক্তার, পৌর কাউন্সিলর মিলন প্রামাণিক, সাখী আক্তার উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/এসএমএন

 

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন