শনিবার ২৩ মার্চ, ২০১৯ ইং , ৯ চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৪ রজব, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সরকার অংশগ্রহণমূলক জাতীয় নির্বাচন চায়: প্রধানমন্ত্রী

সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮ | ৩:১৪ অপরাহ্ণ

।। সারাবাংলা ডেস্ক ।।

সরকার আগামী জাতীয় নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক চায় বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমাদের সরকার চায়, আগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে এবং এতে সব রাজনৈতিক দল অংশ নেবে।

সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ সদর দফতরে যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক মন্ত্রী জেরেমি হান্টের সঙ্গে এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তাকে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করুন, বিশ্বনেতাদের প্রধানমন্ত্রী

সচিব জানান, বৈঠকে জেরেমি হান্ট বলেন, বাংলাদেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করছে যুক্তরাজ্য। জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরাও চাই আগামী নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে এবং সব রাজনৈতিক দল এতে অংশ নেবে।

বৈঠকে রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে আলোচনায় ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে শেখ হাসিনা বলেন, এ সমস্যার সমাধানে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করেছে। মিয়ানমার তাদের নাগরিকদের বাংলাদেশ থেকে ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছে। তবে তারা চুক্তি অনুযায়ী কাজ করছে না।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘যদি আমরা উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে পারি এবং তাদের দেশে ফেরার জন্য নিরাপদ ও মর্যাদাপূণ প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে পারি, তাহলে রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরবে। তবে তেমনটি ঘটছে না।’ এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ভাসানচর নামে একটি দ্বীপে স্থানান্তরে সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

পররাষ্ট্র সচিব জানান, জেরেমি হান্ট শিগগিরই বাংলাদেশ সফরের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ী মিশন আয়োজিত ‘গ্লোবাল কল টু অ্যাকশন অন ওয়ার্ল্ড ড্রাগ প্রবলেম’ বিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে অংশ নেন। এতে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও উপস্থিত ছিলেন। বাসস।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন