শুক্রবার ১৯ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৪ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

খেলা দেখতে মাঠে প্রধানমন্ত্রী

অক্টোবর ১২, ২০১৮ | ৭:৩৫ অপরাহ্ণ

।। স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট।।
ঢাকা: তাঁর পিতার নামেই টুর্নামেন্ট। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে আয়োজন করা এই টুর্নামেন্টের এবার পঞ্চম আসর। সিলেট ও কক্সবাজার ঘুরে ট্রফি এখন ঢাকায়। আজকেই পর্দা নামছে টুর্নামেন্টের। তাই ফিলিস্তিন ও তাজিকিস্তানের চূড়ান্ত মহারণের ফাইনাল ম্যাচটি দেখতে মাঠেই উপস্থিত হয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বসেই খেলা উপভোগ করতে দেখা গিয়েছে ক্রীড়া প্রেমী মানুষটি। ছুটে আসেন মাঠে। উৎসাহ যোগান খেলোয়াড়দের। প্রায়শই এমন দৃশ্য দেখা যায় দেশের ক্রীড়াঙ্গনে। ক্রিকেট-ফুটবলসহ যে কোন খেলায় ছুটে আসতে দেখা যায় তাঁকে।

একটু আক্ষেপ হয়তো থাকতেই পারে প্রধানমন্ত্রীর। আয়োজক দেশ বাংলাদেশ নেই ফাইনালে। অবশ্য তাতে গ্যালারিতে দর্শক ভাটা পড়েনি এতটুকু। খেলার টানেই ছুটে এসেছেন দর্শকরাও।

বিজ্ঞাপন

আর ভিআইপি গ্যালারিতে বসে ম্যাচ উপভোগ করছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী। ম্যাচ শেষে ফুটবলারসহ সংশ্লিষ্টদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়ার কথা আছে তাঁর।

উল্লেখ্য, এর আগে ১৯৯৭ সালে প্রথম এবং ১৯৯৯ সালে দ্বিতীয়বার অনুষ্ঠিত হয়েছিল জাতির জনকের নামের টুর্নামেন্ট ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল প্রতিযোগিতা’। তৃতীয় আসরের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছিল সুদীর্ঘ ১৫ বছর। ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত হয়েছিল সে আসর। পরের বছর ২০১৬ সালে হয় চতুর্থ এবং সর্বশেষ আসর। কিন্তু প্রতি বছর আসরটি আয়োজনের যে প্রতিশ্রুতি বাফুফে দিয়েছিল ২০১৭ সালে সেটা বাস্তবায়ন করতে পারেনি তারা।

এক বছর বিরতি দিয়ে এবার আবারও তারা আয়োজন করেছে আসরটি। যদিও ২০১৬ আসরে ৮ দল অংশ নিলেও এবার দলের সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৬-এ। এশিয়ার পাঁচটি ফুটবল জোন আছে। এই ৫টি জোন থেকে ৫টি দেশ এবং স্বাগতিক বাংলাদেশকে নিয়েই আসরটি আয়োজিত হয়।

সারা বাংলা/জেএইচ

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন