বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে কাঁদলেন পরিচালক

October 27, 2018 | 11:16 am

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট।।

বিজ্ঞাপন

সন্তানের অনিশ্চিত ভবিষ্যতের শঙ্কায় পিতা যেমন চোখের জল ফেলেন। তেমনি পরিচালক হাবিবুল ইসলাম চোখের জল ফেলেছেন নিজের সন্তানতুল্য সিনেমা ‘রাত্রির যাত্রী’র জন্য। কারণ নির্ধারিত তারিখে সিনেমাটি মুক্তি দিতে পারবেন কিনা তা নিয়ে সন্দিহান তিনি! ওই দিন যদি সাফটা চুক্তির আওতায় কোন ভারতীয় সিনেমা মুক্তি পায় তাহলে ছবিটি প্রত্যাশিত সিনেমা হল পাবেনা তার ছবি।

শুক্রবার (২৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের (এফডিসি) জহির রায়হান ডিজিটাল ল্যাবে সিনেমা মুক্তির প্রাক্কালে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এরকম শঙ্কার কথা জানান পরিচালক হাবিবুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

এটি হাবিবুল ইসলাম হাবিবের প্রথম সিনেমা। সেকারণে কিছুটা ভয় থাকাটাই স্বাভাবিক। তবে প্রথম সিনেমা নির্মাণে বেশ উচ্ছ্বসিত তিনি। নিজের প্রথম ছবি সম্পর্কে হাবিবুল ইসলাম হাবিব বলেন, ‘আমি মঞ্চের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত ছিলাম। টেলিভিশন নাটক রচনা ও পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত আছি। সব অভিজ্ঞতার সন্নিবেশ করে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা নির্মাণের ইচ্ছা আগে থেকেই ছিল। সেই ইচ্ছা থেকে গল্প নির্বাচন করলাম। চিত্রনাট্য করে শিল্পী নির্বাচনের পর সিনেমার কাজ শুরু করি।’

এদিকে সিনেমার কাহিনী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটি এক রাতের একটি গল্প। মধ্যরাতের ট্রেনে মৌসুমি এসে নামে কমলাপুর স্টেশনে। তার এক ভাই মারজুক রাসেল তাকে নিতে আসার কথা। কিন্তু তার সঙ্গে তার দেখা হয়না। সারারাত রাস্তায় থাকে। চোখের সামনে সে নানারকম বাস্তবতা দেখতে পায়। এভাবে কাহিনী এগোতে থাকে। মৌসুমির চরিত্রটির নাম ময়না।’

বিজ্ঞাপন

মৌসুমির কাছে সিনেমাটির গল্পটি অন্যসব সিনেমার মতো নয়। সম্পূর্ণ আলাদা ধরনের গল্প। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের গল্পের সিনেমার ভবিষ্যত খুব ভালো। এটি নতুন চিন্তার একটি গল্প। পরিচালক হাবিবুল ইসলাম হাবিব সাহস করে প্রথম সিনেমা নির্মাণ করেছেন। সেজন্য তিনি প্রচুর পরিশ্রম করেছেন। আমি মনে করি সিনেমাটি সবার কাছে ভালো লাগবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিচালক আমজাদ হোসেন, কাজী হায়াৎ, নায়ক ফারুক, এটিএম শামসুজ্জামান, নাদের চৌধুরি, অনিমেষ আইচ, জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ প্রমুখ। তারা সবাই ‘রাত্রির যাত্রী’ সিনেমার জন্য শুভ কামনা জানান। সেই সঙ্গে বাংলা সিনেমার উন্নয়নের জন্য বিভাজন ভুলে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।

‘রাত্রির যাত্রী’ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, এটিএম শামসুজ্জামান, শহিদুজ্জামান সেলিম, সালাহউদ্দিন লাভলু।

ছবি : এরিন

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরএসও/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন