বৃহস্পতিবার ২৩ মে, ২০১৯ ইং , ৯ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

চিকিৎসক-চিকিৎসা না পেয়ে বারডেম হাসপাতালে রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

ডিসেম্বর ১, ২০১৮ | ৯:৫২ অপরাহ্ণ

।। স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: বারডেম হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দু’দিন পর মারা যান হাসনা আহমেদ। অভিযোগ উঠেছে, হাসপাতালে আসার পর দুই দিনে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়নি। দেখতে আসেননি কোনো চিকিৎসক।

হাসনা আহমেদ বৃহস্পতিবার আনুমানিক রাত ১টার দিকে অসুস্থতা অনুভব করেন। ডায়াবেটিক রোগী হওয়ায় তাকে নেওয়া হয় শাহবাগে বারডেম হাসপাতালে। পরিস্থিতি বর্ণনা করতে গিয়ে তার ছেলে মাকসুমুল মাহমুদ জানান, গভীর রাতে একজন রোগী নিয়ে আমরা এলাম, অথচ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে কোনো সহযোগিতা করা হলো না। রোগীকে ভর্তি করাতেও অনেক অনুরোধ করতে হলো।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, হাসপাতালের ১১০২ নম্বর কেবিনে ভর্তি করা হয়। সেটুকুতেই যেন দায়মুক্তি! আজ (১ ডিসেম্বর) সকাল পর্যন্ত একজন চিকিৎসকও রোগীর কোনো খোঁজ-খবর নেননি। বৃহস্পতিবার গভীর রাত ছিল, শুক্রবার সরকারি ছুটির দিন। আমরা কোনো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পাইনি। কিন্তু একবারের জন্যও খোঁজ নিতে আসেননি কোনও ডিউটি ডাক্তার। নার্সদের সহযোগিতা চেয়েও পাওয়া যায়নি।

হাসনা আহমেদের স্বজনরা জানান, ভর্তির পর থেকে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত কোনো চিকিৎসকের দেওয়া পাওয়া না গেলেও, রোগী মারা গেছে- খবর ছড়িয়ে পড়লে নিরাপত্তারক্ষীদের নিয়ে অসংখ্য ডাক্তার কেবিনে আসেন। আমাদের কাছেই জানতে চেয়েছেন, রোগীর কী হয়েছিল, কিভাবে মারা গেল। এক পর্যায়ে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। চিকিৎসক এবং কর্তৃপক্ষ মরদেহ নিয়ে দ্রুততম সময়ে হাসপাতাল ত্যাগ করতে এক প্রকার বাধ্য করেন আমাদের।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হাসপাতালের যুগ্ম পরিচালক মো. ফজলে রাব্বী সারাবাংলাকে বলেন, একজন রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে তার স্বজনরা কিছুটা উত্তেজিত হয়েছিল। তবে এ ঘটনাটি সকালেই মিটমাট হয়ে গেছে। চিকিৎসা সংক্রান্ত কোনো ত্রুটি ছিল কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে বিষয়ে তার কিছু জানা নেই।

সারাবাংলা/জেএ/এটি

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন