বিজ্ঞাপন

শিশির মাখা সুখের দিন

December 1, 2017 | 5:17 am

নরম ভেজা বাতাসে মিষ্টি গন্ধ নিয়ে চমৎকার একটা আবহাওয়া চলে এসেছে। অগ্রহায়ণের আজ ১৭ তারিখ। বছরের এটাই সবচেয়ে আরামের সময়, গরমের অস্বস্তিও নেই আবার শীতের বুড়ি বিধ্বংসী হয়ে আমাদের আক্রমণও করছে না।

বিজ্ঞাপন

চমৎকার রৌদ্রজ্জ্বল দিনে আজকে সূর্য উঠেছে, ৬:২৩ এ। শুক্রবারের দিন, আমরাও বেশ গড়িয়ে টরিয়ে বেলা করে উঠব তো সূর্যেরই বা এত আগে উঠে কী কাজ? এখন তাপমাত্রা মোটামুটি ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মানে হচ্ছে প্রকৃতির এয়ার কন্ডিশন চলছে। আর এটাই তো সময় স্টাইলিশ সব জ্যাকেট, শাল বের করার। দিনের দিকে একটু হালকা গরম  কাপড়, পাতলা চাদর হলেই হবে। বেলা দুইটায় তাপমাত্রা থাকবে ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, তখন সেগুলো খুইলেই রাখতে হবে। এর পরে থেকে কিন্তু তাপমাত্রা নামা শুরু করবে।

আজ যাদের রাতে বের হওয়ার পরিকল্পনা আছে তারা মোটামুটি দারুনভাবে সাজুগুজু করতে পারবেন, তবে হিট হট ভারি শীতের পোশাক পরতে ভুলবেন না। রাত ১০টার দিকে তাপমাত্রা নেমে দাঁড়াবে ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, ওয়েস্টার্ন ফ্যশানের যে শখটা গরমের সময় বাক্স প্যাটরায় ভরে উঁচু তাকে উঠিয়ে রাখতে হয়েছিল সেগুলোকে নামিয়ে নিন। আজকেই স্টাইলের দিন।

বিজ্ঞাপন

সাজুর কথা যদি বলতেই হয় তবে আজকের দিনটা হচ্ছে ফুশিয়া, মেরুন, বটল গ্রিনের। দিনের বেলা উজ্জ্বল ফিরোজা, গাঢ় নীল, টুকটুকে লাল, ম্যাজেন্টা এ রঙগুলোও পরা যায়। দিনের যে কোন বেলা কফি খাওয়া যাবে সাথে কফি রঙ্গা পোশাক পরতেও বাঁধা নেই কোনো বেলাতেই। শুধু অন্য রঙের জামায় যেন কফি ছলকে না পরে। শুধু শুধুই সাজগোজের বারোটা বেজে যাবে।

শীতের হাওয়া আজকেও উত্তর ও উত্তর পূর্ব দিক থেকেই আসবে তবে হাওয়ার বেগ বেশ ছয় নয় করবে, তাই এক দুইবার ছয় এবং নয় কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় না থেকে দুই কিলোমিটারেও নেমে যেতে পারে।

বিজ্ঞাপন

যদিও সূর্যের কম উঠা, কুয়াশার চাদর মুড়ে থাকা, ঠাণ্ডা আবহাওয়া ইত্যাদি দেখে মনে হচ্ছে সূর্যের তেজ কম আছে তবুও সানস্ক্রিন না মেখে বের হওয়ার কোনো দরকার নেই, উল্টো একটা টুপিও সাথে থাকতে পারে। আকাশে মেঘের কোনো চিহ্ন নাই বললেই চলে, সেই সুযোগে আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি তার স্কেলে ৪ পর্যন্ত উঠে যাবে। এর মানে হচ্ছে রোদের তেজ এতই বেশি যে পুড়ে যেতে আরও কম সময় লাগবে। এ পুড়ে যাওয়া মানে শুধু কালো হওয়া না কিন্তু, ত্বকের আরও অনেক ক্ষতি হতে পারে, এটা থেকে ক্যান্সারের ঝুঁকিও বাড়ে। ছোট শিশুদেরও যদি ভিটামিন ডি-এর জন্য রোদ খাওয়াতে চান সকাল ১০টার আগে সেড়ে ফেলবেন। নাহয় পরে লোভের মাশুল গুনতে হতে পারে।

আজকের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে দেখা যাচ্ছে,  বাতাসের আর্দ্রতা দিনের দিকে বেশ কম এটা বোঝার জন্য অবশ্য পূর্বাভাস লাগে না। ত্বক টেনে টেনেই বাতাস বলতে থাকবে, ব্যাটা এবার ক্রিম মাখ, আমার ভরসায় আর থাকিস না। তবে সকালের টানাটানিকে বিকালে সিরিয়াসলি নেওয়ার কিছু নাই, রাতের দিকে আর্দ্রতা ৮০ শতাংশের উপরে উঠে যাবে। তখন শেষে ত্বক চ্যাটচ্যাট করবে।

বিজ্ঞাপন

আজ যেহেতু প্রায় সবার ছুটি সকালের দিকে একটু রূপচর্চা করতে পারে, একটু কেশ চর্চাও করা যেতে পারে, ত্বক ও চুলকে দীর্ঘ শীতের জন্য শক্তিশালী করা আবশ্যক। আর কিছু না হোক, গরম পানিতে শ্যাম্পু, লবণ ইত্যাদি দিয়ে পা ভিজিয়ে রেখে পা দুটোকে ভালো করে ঘষে মরা চামড়াটা তুলে ফেলেন। দেখবেন পায়ের পাতা  কেমন নরম পেলব হয় আর পা ফাটার যন্ত্রণা কই চলে যায়।

চাঁদের মতো সুন্দর পা দেখতে দেখতে আবার ভুলে যাবেন না চাঁদেরও কিন্তু শুক্লপক্ষ চলছে আর চাঁদ মামা বেশ হাট্টাগাট্টা হয়ে দিন থাকতেই আকাশে উঠে বসে আছেন আমাদের সন্ধ্যাকে আরও মনোরম করতে। চাঁদের আজ আকাশে ১৩ ঘণ্টার ডিউটি। দুপুর সাড়ে তিনটা থেকে পরদিন ভোর সাড়ে ৪টা পর্যন্ত চাদকে দেখা যাবে।

বিজ্ঞাপন

সুন্দর এই আলসে ছুটির দিনে আপনাদের দিন অসাধারণ কাটুক।

সারাবাংলা/ এমএ/ডিসেম্বর ১,২০১৭

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন