বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০১৯ ইং , ৬ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ইতালিতে মহিলা সমাজ কল্যান সমিতির পিঠা উৎসব

জানুয়ারি ১১, ২০১৯ | ৫:২৫ পূর্বাহ্ণ

।। ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালি প্রতিনিধি ।।

ইতালির রোমে বাংলার ঐতিহ্যবাহী শীতকালীন পিঠা উৎসবের আসর বসে বাংলা অধ্যুষিত এলাকা তরপিনাত্তারা সুন্দরবন রেস্টুরেন্টের হলরুমে। মহিলা সমাজ কল্যান সমিতি এর আয়োজন করে। বাহারি স্বাদের ৫৮ ধরনের পিঠার সম্ভার ছিল এই মেলায়।

এতে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা শামীমার উপস্থাপনায় সভাপতি লায়লা শাহ্ মেলা উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা সমাজ কল্যান সমিতি কার্যকরী কমিটির সকল নেতৃবৃন্দরা।

এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন ইতালির আঞ্চলিক, সামাজিক, রাজনৈতিক সহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। অতিথিরা তাদের বক্তব্যে বলেন, আমাদের প্রবাসী সন্তানরা যখন দেশীয় ইতিহাস, ঐতিহ্য ভুলতে বসেছে ঠিক সেই মুহূর্তে এই দেশীয় পিঠা উৎসব অবশ্যই প্রসংশনীয়। বাঙালির এই চিরন্তন ঐতিহ্য পিঠা নগরজীবনের আধুনিকতার ছোঁয়া আর পিৎজা ও ফার্স্ট ফুডের ভিড়ে হারিয়ে যেতে বসেছে। তারা আরো বলেন, পিঠা মেলায় দল-মত নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার বাংলাদেশিদের মিলনমেলা দেখে অনেক ভালো লাগছে। এই ধরনের উদ্যোগ বাস্তবায়নে মহিলা সমাজ কল্যান সমিতি সব ধরনের সহযোগিতা করবে বলেও আশ্বাস দেন অতিথিরা।

বিজ্ঞাপন

উদ্বোধন ও আলোচনার পর মেলা ঘুরে দেখছেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। ভাপা পিঠা, পুলি পিঠা, সন্দেশ ছাড়াও আরও অনেক বাহারি পিঠার স্টল নিয়ে বসেন প্রবাসী বাঙালি নারীরা। স্টলের মধ্য থেকে পিঠা বানানোর পদ্ধতি, স্বাস্থ্যসম্মত আর মজাদার পিঠা ইত্যাদি বিবেচনা করে অতিথিরা তাদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সব মিলিয়ে অনুষ্ঠানটি ছিল পুরো বাঙালিয়ানায় পরিপূর্ণ। দেশের গান, নাচ, কবিতা, আবৃত্তি, কৌতুক সহ নানা বিনোদনে ছিল মনোমুগ্ধকর। এসব দর্শকদের বেশ আনন্দ দিয়েছে। সুন্দরবন রেস্টুরেন্টের বিশাল হলরুমে অনুষ্ঠিত এই মেলায় প্রবাসী বাঙালিদের ব্যাপক উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। রোম শহরের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নানা বয়সের শিশু নারী-পুরুষ মেলায় অংশগ্রহণ ও হরেক রকমের পিঠা পরিদর্শন করেন।

এই মেলায় সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের মধ্যে বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন সহ-সভাপতি আঁখি সীমা কাওসার, নিলুফা বানু, ফাতেমা কবির, সায়মা পিংকি, সহ-সাধারণ সম্পাদক তাহমিনা আক্তার, রোকেয়া খাতুন মিরা, নাসরিন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবা আক্তার চৌধুরী বাবলি, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেনাজ তাবাস্সুম শেলী, সহ-কোষাধ্যক্ষ মনি আক্তার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ইফরোজা খানম ইফা, সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা জেসমিন আম্বিয়া, সহ-দপ্তর সম্পাদক খুশবু, সহ- প্রচার সম্পাদক সালমা পারভিন মনি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমা বেগম, আইন বিষয়ক সম্পাদক মিলভা শাহ্ সহ আরো অনেকেই ।

আয়োজক নেতৃবৃন্দরা জানান, আমরা প্রতিবছরই এ ধরনের উৎসবের আয়োজন করে থাকি। এবারের পিঠা মেলা ছিল আগের বছরগুলোর তুলনায় ব্যতিক্রমধর্মী ও অনেক বড়।

গ্রামবাংলার পিঠাপুলির স্বাদ প্রবাসের নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতেই এই উদ্যোগ বলে জানান সভাপতি লায়লা শাহ্। তিনি আরো বলেন, সকলের সহযোগিতায় বিদেশি ও আমাদের প্রজন্মের কাছে দেশীয় ঐতিয্য পৌঁচ্ছে দিতে শুধু পিঠা উৎসবই নয়, আরো সুন্দর এবং বড় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করতে সক্ষম হবো। এসময় তিনি সংগঠনের পক্ষ থেকে উপস্থিত সকলের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পরিশেষে শিশুদের ফ্যাশন শো সহ সঙ্গীতানুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন রোমের বিশিষ্ট শিল্পী শাপলা,পাপ্পু সহ আরো অনেকেই।

সারাবাংলা/এমআরপি

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন