রবিবার ২৪ মার্চ, ২০১৯ ইং , ১০ চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৬ রজব, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

কানাডায় পৌঁছেছেন সৌদি তরুণী কুনান

জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ | ৪:০১ পূর্বাহ্ণ

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

দেশ ও পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করা সৌদি তরুণী রাহাফ আল-কুনান শরণার্থী হিসেবে কানাডায় পৌঁছেছেন। রোববার (১৩ জানুয়ারি) সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়।

কুনান প্রথমে ব্যাংকক থেকে সিউল ও পরে টরেন্টোর পিয়ারসন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে পৌঁছান। কানাডায় যাওয়ার পর দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড কুনানকে ‘খুব সাহসী নতুন কানাডিয়ান’ বলে সম্বোধন করেন।

বিজ্ঞাপন

ক্রিস্টিয়া বলেন, সে খুব সাহসী নারী। তাকে অনেক কিছুর মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এখন সে তার নতুন বাড়িতে যাবে।

দীর্ঘ ভ্রমণে ক্লান্ত কুনান কোন গণমাধ্যমের সাথে এখুনি কথা বলবেন না বলেও জানানো হয়। এদিকে কানাডায় আশ্রয় পাবার অনুভূতি জানিয়ে কুনান টুইটারে লিখেছেন, ‘আমি পেরেছি!’ অর্থাৎ অনিশ্চিত ভবিষ্যতের শঙ্কা পিছনে ফেলেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ইসলাম ধর্ম ত্যাগ করা রাহাফ আল-কুনান পরিবার থেকে পালিয়ে কুয়েত থেকে থাইল্যান্ড হয়ে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু কাগজপত্র না থাকায় ব্যাংকক বিমানবন্দরে আটক করা হয় তাকে। বিমানবন্দর থেকে কুনান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের অবস্থা তুলে ধরেন। তিনি জানান, ধর্মত্যাগ করায় তাকে হত্যা করা হতে পারে। শরণার্থী হিসেবে যেন তাকে কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া অথবা যুক্তরাজ্যে আশ্রয় দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে, জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) আল-কুনানকে শরণার্থীর মর্যাদা দেয় ও নিরাপদ আশ্রয়ের ব্যাপারে আশ্বস্ত করে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, কানাডা মানবাধিকার ও নারীর অধিকারের পক্ষে সবসময় দাঁড়াবে। জাতিসংঘের অনুরোধের পর আমরা আল-কুনানের আশ্রয়ের বিষয়টি নিশ্চয়তা দিয়েছি।

এদিকে সৌদি আরব কুনানের ব্যাপারে মুখ খোলেনি। দেশটি বলছে, তরুণী যা করেছে তা পারিবারিক সমস্যা হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

সারাবাংলা/এনএইচ

কানাডায় পৌঁছেছেন সৌদি তরুণী কুনান
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন