সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

চরিত্রটির জন্য শুভ রাইট চয়েস : ঋতুপর্ণা

জানুয়ারি ১৬, ২০১৯ | ৫:২৮ অপরাহ্ণ

।। রেজওয়ান সিদ্দিকী অর্ণ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ।।


বিজ্ঞাপন

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর হোয়াটসঅ্যাপে ‘আহা রে’ সিনেমার পোস্টার। ফেসবুক কভার ফটোতেও তাই। দেখেই বোঝা যাচ্ছে মুক্তিপ্রতীক্ষিত সিনেমাটি নিয়ে তিনি প্রচন্ড রকমের উচ্ছ্বসিত। এই ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন তো বটে। পাশাপাশি ছবির প্রযোজকও তিনি। একই সঙ্গে প্রযোজক ও অভিনেত্রী হওয়ায় উচ্ছ্বাসটা তাই বেশি।

রঞ্জন ঘোষ পরিচালিত ছবিটিতে ঋতুপর্ণার সঙ্গে পর্দা ভাগাভাগি করবেন বাংলাদেশের আরিফির শুভ। টালিগঞ্জের নায়ক রেখে কেনো ঢালিউডের নায়কের ওপর ভরসা রাখলেন প্রযোজক ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত? উত্তরে তিনি সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমি শুভর সঙ্গে এর আগে বাংলাদেশের একটি ছবিতে অভিনয় করেছি। আমি যখন এই ছবির (আহা রে) স্ক্রিপ্ট শুনলাম তখন মনে হয়েছে চরিত্রটির জন্য শুভ রাইট চয়েস। কারণ ছবিতে বাংলাদেশের একজন শেফ এবং কলকাতার রাঁধুনী যে হোম ডেলিভারি করে- এদের দুজনের কম্বিনেশন রয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘অভিনয় করার সময় মনে হয়েছে শুভ অত্যন্ত ডাউন টু আর্থ অ্যাক্টর। অভিনয় নিয়ে ও খুব ভাবে। চরিত্রকে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলে ধরার চেষ্টার করে।’

এটাই প্রথম ঋতুপর্ণা প্রযোজিত প্রথম সিনেমা নয়। এর আগে তিনি বেশকিছু চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেছেন। সেসব ছবিতে তার বিপরীতে নিজের থেকে কম বয়সের নায়ককে অভিনয় করতে দেখা গেছে। কম বয়সি নায়ক নির্বাচনের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘শিল্পী তো শিল্পী। কম বয়সি হোক আর বেশি বয়সি হোক। চরিত্রের জন্য যাকে উপযুক্ত মনে হয়েছে তাকে কাস্টিং করা হয়। আর কাস্টিংয়ের বিষয়টি পরিচালক দেখেন। তাছাড়া জেনারেশন গ্যাপ মানুষ দেখে না। দিনশেষে মানুষ অভিনয়টা দেখে। আমি আমার অনেক প্রযোজিত ছবিতে আমার সমসাময়িকদের কাস্টিং করেছি।’

সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে ২৭ বছর ধরে অভিনয় করে যাচ্ছেন ঋতুপর্ণা। অভিনেত্রী হিসেবে তিনি সফল। প্রযোজক হিসেবেও কি ঋতু সফল? ঋতু বলেন, ‘সফলতা-ব্যর্থতার বিষয় না। ভালো ডিরেক্টরদের সঙ্গে কাজ করা আমার প্যাশন। চিরকালই নতুন সম্ভাবনময় পরিচালকদের পাশে দাঁড়িয়েছি। তবে হ্যাঁ, সফল হয়েছি। আবার ব্যর্থও হয়েছি। আসলে সফলতা-ব্যর্থতা নিয়েই জীবন।’

সিনেমার ক্যারিয়ারে বাংলাদেশের অনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। অনেক নায়কের সঙ্গে পর্দায় হাজির হয়েছেন। সব নায়কের সঙ্গে অভিনয় ঋতুপর্ণা উপভোগ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি বাংলাদেশে প্রায় সব নায়কের সঙ্গে অভিনয় করেছি। সবার সঙ্গে কাজ উপভোগ করেছি। এখন যাদের সঙ্গে কাজ করছি তাদের সঙ্গেও অভিনয় করে ভালা লাগছে।’

এদিকে ঋতুপর্ণা বাংলাদেশের আরও দুটি ছবিতে অভিনয় করছেন। নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল পরিচালিত ‘গাঙচিল’ ও ‘জ্যাম’ ছবিতে দেখা যাবে তাকে। সেজন্য শিগগিরই বাংলাদেশের ফ্লাইট ধরবেন তিনি। তবে আসার তারিখ এখনও ঠিক হয়নি বলে তিনি জানান।

অভিনয় করছেন। পাশাপাশি প্রযোজনা। ছবি পরিচালনার ইচ্ছার কথা জানতে চাইলে বলেন, ‘এখনই ইচ্ছা নেই। সেরকমটা ভাবছি না। যদি সামনে কখনও ছবি পরিচালনা করি তাহলে আপনারা তো জানবেনই।’

প্রচ্ছদ ছবি: আশীষ সেনগুপ্ত

সারাবাংলা/আরএসও/পিএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন