বিজ্ঞাপন

দীঘল আলোকিত রাত

December 3, 2017 | 6:55 am

সারাবাংলা প্রতিবেদক

বিজ্ঞাপন

আজ অগ্রহায়ণ মাসের ১৯ তারিখ। আর আজকের রাতই বহুল প্রতীক্ষিত পূর্ণিমার রাতও। একে তো রাত বিশাল বড় সেই ০৫:১১ তে দিন ডুবে যাবে, তার আগেই ৫:০৯ এ বিশাল এক চাঁদ আকাশে দেখা যাবে। সেই চাঁদ পুরো রাত জুড়ে থাকবে আকাশের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত।

ভোর বেলা ছয়টা নাগাত পশ্চিমের আকাশে চাঁদ যখন ঢলে যাবে মনে হবে যেন বিশাল একটা কাঁসার থালা। ভোরে উঠে ঘুমের ঘোরে সেই চাঁদকে আবার কেউ পশ্চিম দিকে উঠা সূর্য ভেবে বসেন না! সেদিন অর্থাৎ ৪ ডিসেম্বরের সূর্য যথা সময়ই উঠবে। তবে সেই গল্প যদি আমরা আজ ৩ তারিখেই করে ফেলি তবে ৩ তারিখের বাকি খবর কে দিবে শুনি?

বিজ্ঞাপন

আজ ৩ ডিসেম্বর। আপনি যদি রাত জাগা পাখি হন আর তিনকে একদম বিলাতি কেতায় রাত ১২টা থেকে শুরু করতে চান তবে বলি, গরম কাপড় নিয়েই বসেন। প্রথম প্রহরে তাপমাত্রা থাকবে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর যখন সূর্য আকাশে থাকে না আর থাকলেও খানিকটা ঘুমের দিকে থাকে তখন কিন্তু সত্যিকার তাপমাত্রার চেয়েও দুই এক ডিগ্রি কম অনুভূত হয়। তাহলে ঘটনাটা দাঁড়ালো যে, রাতের দ্বিপ্রহরে শীত একটু কড়াই আছে। চাচ্ছে যেন আমরা ওকে সামঝে চলি। আমাদেরই বা শীতকালে শিতের সাথে বিবাদ করে কী কাজ! আমরা বরং লেপ কম্বল গায়ে চড়িয়েই যা করতে চাই করে ফেলি।

সকালের তাপমাত্রা যথারীতি সূর্য উঠার আগে সর্বনিম্ন ১৬ ডিগ্রিতে নেমে যাবে। এ বছর শীত পড়ছে এর সবচেয়ে ভালো প্রমাণ পাওয়া যাবে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দেখলে। গতবছর এমন দিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সকালেও ঠিক গরম গরমই লাগতো। শীতের সকাল একটু হিম হিম না লাগলে হবে? যাক এই বছর আর এই চিন্তা নেই সকালে হিম আছে, শিশির আছে, তাহলে পিঠেপুলি খাওয়ার আয়োজনও শুরু করা যায়।

বিজ্ঞাপন

আশেপাশের দিনের মধ্যে আজকের দিনটা একটু বেশি উজ্জ্বল বলে পূর্বাভাস পাওয়া গিয়েছে। আজ সূর্যকেও বেশ হাসিখুশি দেখা যাবে, আকাশে মেঘ বলতে গেলে থাকবেই না। সেই সুযোগে সূর্যের অতিবেগুণী রশ্মি খুব করে আক্রমণ করতে পারে। এতে তো ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হবেই, চুলও বেশ কষ্ট পাবে তাই শুধু সানস্ক্রিন মেখে চুপ করে থাকা যাবে না। মাথায় একটা স্কার্ফ বাঁধতে হবে। কমপক্ষে একটু ছাতা রাখতে হবে। আর সানগ্লাসের কথা ভোলা যাবে না কিছুতেই। ইদানীং সাদাটে সানগ্লাস খুব চলছে, হালকা ছায়ার সাথে চোখ ঝকঝকে দেখা যায়। এই সানগ্লাস একটা লাগিয়ে বেশ করে শীত উপভোগ করতে হবে।

সন্ধ্যা নামতেই তো আজ পূর্ণিমা। পূর্ণিমার আলো গায়ে মেখে খুব করে চাঁদকে উৎযাপন করা যাবে। যেহেতু আজ মেঘ কম। চাঁদের আলো অনেক স্পষ্টভাবে দেখা যাবে। অগ্রহায়ণ মাসের এই পূর্ণিমাকে বাংলায় বলে অগ্রহায়ণ পূর্ণিমা, ইংরেজরা এটাকে বলে ওক মুন আর আমেরিকানরা বলে কোল্ড মুন। তা ওরা যাই বলুক আমাদের আর কী, আমাদের চাঁদ তো আর শীতল হয়নি, শীতের রাতে দিব্যি আমাদের মনকে উষ্ণ করে দিচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এই চাঁদ দেখে দেখে আবার কেউ সকালের অফিস মিস করবেন না যেন, সপ্তাহের মোটে শুরু, এমন সময়ে কাব্য করে ভাবের সাগরে ডুবে গেলে পরে অমাবস্যার তিথিতে খেয়ে পরে বাঁচতে তো হবে! তাই চাঁদ চাঁদের কাজ করুক, আমরা যেন আমাদের কাজকে অবহেলা না করি। ঠিকঠাক রজ কাজ করলে আমরাও তো একদিন নিজেদের আলোকিত করে ফেলব, সে আলোক উৎসবকে ধরে আনতে কঠিন পরিশ্রমে আমরা যেন আমাদের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যেতে পারি।

আলোকিত দিনের শুভ প্রত্যাশায় আজ আপনার দিনটাও শুভ হোক।

বিজ্ঞাপন

সুমন/০৩-১২-২০১৭

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন