বিজ্ঞাপন

বাড়ির কাছেই দুই ভবনের মাঝে পড়ে ছিল শিশু হালিমার মরদেহ

February 2, 2019 | 5:18 pm

।। ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট ।।

বিজ্ঞাপন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের ভাদুঘর এলাকার তিন বছরের শিশু হালিমা আক্তার। শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকেই তাকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না স্বজনরা। শিশুটিকে খুঁজে পেতে এলাকায় মাইকিংও করা হয়।

বেশ কিছুক্ষণ পর খোঁজ মেলে হালিমার। তবে ততক্ষণে সে হারিয়েছে তার চঞ্চলতা, সে তখন একটি মরদেহ মাত্র।

বিজ্ঞাপন

নিহত হালিমা আক্তার ভাদুঘরের ভূঁইয়াপাড়া এলাকার আমির হোসেনের মেয়ে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক জানান, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় হালিমা। পরে পরিবারের লোকজন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজির পর তার সন্ধানে এলাকায় মাইকিং করে। এর কিছুক্ষণ পর খবর আসে তাদের বাড়ি থেকে মাত্র ৫০০ গজ দূরে দুইটি ভবনের মাঝের ফাঁকা জায়গায় হালিমার মরদেহ পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন

পরিদর্শক আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ফেলে রাখা হয়েছে। তবে তদন্তের পর জানা যাবে কি কারণে বা কেন মারা গেছে শিশু হালিমা। মরদেহহটি ময়নাতদন্তের জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর হয়েছে।

সারাবাংলা/এসএমএন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন