শুক্রবার ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ১৩ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সংরক্ষিত নারী আসনে আ.লীগের ৪৩ মনোনয়নপত্র দাখিল

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ | ৪:০১ অপরাহ্ণ

।। স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদের ৪৩টি সংরক্ষিত নারী আসনের মনোনয়নপত্র একযোগে দাখিল করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলের পক্ষে ৪৩ জন নারী সংসদ সদস্য প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র আগারগাঁও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে জমা দেন।

এছাড়াও এদিন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাও দলের চার নারী সংসদ সদস্যের পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আজ সোমবার ছিলো মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ১২ ফেব্রুয়ারি আর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৬ ফেব্রুয়ারি।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত ৩ ফেব্রুয়ারি সংরক্ষিত নারী আসনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ৪ মার্চ একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন।

সংসদের সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ৪৩, জাতীয় পার্টি ৪, বিএনপি ১, ওয়ার্কার্স পার্টি একটি ও অন্যদের মধ্যে স্বতন্ত্র তিনটি আসনের বিপরীতে একটি আসনে প্রার্থী দিতে পারবে। তবে এখনও বিএনপি’র পক্ষ থেকে কোনো মনোনয়ন জমা দেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, আসনবণ্টন বিদ্যমান আইন অনুযায়ী সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্যদের জন্য কোনো নির্ধারিত নির্বাচনি এলাকা নেই। তারা কেবল দলীয় বা জোটের সদস্য হিসেবে পরিচিত হবে। এক্ষেত্রে দল বা জোটের প্রাপ্ত আসনের ভিত্তিতে নারী আসন বণ্টিত হবে।

সংবিধান অনুযায়ী, বর্তমানে সংরক্ষিত মহিলা আসন সংখ্যা ৫০। এই ৫০ সংখ্যাকে ৩০০ (দেশের নির্বাচনি এলাকা) দিয়ে ভাগ করলে যে ভাগফল পাওয়া যাবে, তাকে কোনো দল বা জোটের যে সংখ্যক সদস্য শপথ নিয়েছেন, তা দিয়ে গুণ করলে যে ফল পাওয়া যাবে, সেই সংখ্যক মহিলা সদস্য হবে ওই দল বা জোটের। গুণফল ভগ্নাংশ হলে সেক্ষেত্রে ০.৫ বা তার থেকে বেশি সংখ্যকের জন্য একটি আসন পাওয়া যাবে। অবশ্য এক্ষেত্রে বণ্টিত আসন সংখ্যা মোট আসনের থেকে বেড়ে গেলে ভগ্নাংশের হিসেবে হেরফের হতে পারে। আইনে কোনো কোনো ক্ষেত্রে লটারির বিধানও রয়েছে।

সারাবাংলা/জিএস/এমও

সংরক্ষিত নারী আসনে আ.লীগের ৪৩ মনোনয়নপত্র দাখিল
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন