রবিবার ২১ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ৮ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

শতভাগ বিদ্যুতায়ন এ বছরেই: প্রতিমন্ত্রী

ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ

।। স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ।।

ঢাকা: চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন সম্ভব হবে বলে আশাবাদ জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু।

তিনি বলেন, চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে দেশের প্রতিটি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওয়াতায় আনা হবে। এরই মধ্যে দেশের ৯৩ ভাগ এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। আশা করছি, এই ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ এলাকায় বিদ্যুতায়ন করা হবে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদ অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য ও হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাসের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের ৯৩ শতাংশ এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করে ফেলেছি। বেশকিছু এলাকায় বিদ্যুতায়নের পরিমাণ ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ। আশা করি, এ বছরের শেষ নাগাদ এসব এলাকাতেও বিদ্যুতায়নের কাজ শেষ করতে পারব।

নসরুল হামিদ বলেন, জাতীয় গ্রিডের ৭০, ৮০ বা ১০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এলাকাগুলোকে অফ গ্রিড এলাকা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সেসব দুর্গম এলাকায় কিভাবে বিদ্যুৎ পৌঁছানো যায়, সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ চলছে। এর সুফল পাওয়া যাচ্ছে। স্বর্ণদ্বীপে সমুদ্রের তলদেশ দিয়ে ১৪ কিলোমিটার পার করে বাংলাদেশে বিদ্যুতায়ন করেছি, তাতে প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া গেছে।

সরকারি দলের আরেক সদস্য ইসরাফিল আলমের আরেক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে এলপিজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) উৎপন্ন হয় না, বোতলজাত করা হয়। এলপিজি তরল বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়। আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত ৩ মিলিয়ন টন এলপিজি প্রয়োজন। এজন্য আমরা প্রাইভেট সেক্টরকে অনুমোদন দিয়েছি। এ পর্যন্ত  ৫৫টি কোম্পনিকে লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। এখনও লাইসেন্স দেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান। যারাই আসছে, লাইসেন্স দিচ্ছি। এরই মধ্যে ছয়টি কোম্পানি প্রাথমিক ও চূড়ান্ত অনুমোদন নিয়ে কাজ শুরু করেছে।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন