বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ১২ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

‘আরেকটা সেরেনা-ভেনাস কোর্টে দেখা যাবে না’

ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯ | ৮:১৬ অপরাহ্ণ

।। স্পোর্টস ডেস্ক ।।

গ্র্যান্ড স্লাম টুর্নামেন্ট খেললেও গত বছরের আগে জাপানের ঘরে কোনো শিরোপা ছিল না। সে বছর জাপানের ২০ বছর বয়সী তরুণী ওসাকা নাওমি দেশের হয়ে গড়েছিলেন নতুন ইতিহাস। ইউএস ওপেনের ফাইনালে ২৩টি গ্র্যান্ড স্লামের মালিক সেরেনা উইলিয়ামসকে সরাসরি সেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতেছিলেন নাওমি। জাপানের ইতিহাসের প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপাও ছিল সেটি।

কদিন আগেই চেক রিপাবলিকের টেনিস তারকা পেত্রা কেভিতোভার বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জিতেছেন জাপানিজ সেই তারকা ওসাকা। রড লাভার অ্যারেনায় ফাইনালের মঞ্চে ২১ বছর বয়সী ওসাকা ৭-৬ (৭-২), ৫-৭ এবং ৬-৪ গেমে হারিয়েছেন ২৮ বছর বয়সী কেভিতোভাকে।

বিজ্ঞাপন

ইউএস ওপেনের ফাইনালে সেরেনা উইলিয়ামস ৬-২, ৬-৪ গেমে হারার আগে মিয়ামি ওপেনেও হেরেছিলেন ওসাকার কাছে। সেরেনার বিপক্ষে খেলা হলেও তার বোন ভেনাস উইলিয়ামসের বিপক্ষে খেলা হয়নি ওসাকার। আমেরিকান দুই টেনিস বোনের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে ইতিহাস গড়া ওসাকা জানালেন, আরেকটি সেরেনা-ভেনাস হয়তো টেনিসের কোর্টে দেখা যাবে না। আমি ভেনাসকে খুবই ভালোবাসি, তবে আমার এক নম্বর পছন্দ সেরেনা।

ক্যারিয়ারে পাঁচবার ডব্লিউটিএ ট্যুরের ফাইনালে উঠে দুবারই শিরোপা ঘরে তোলা ওসাকা আরও জানান, আমার মনে আছে সেরেনা যখন হিয়েদার ওয়াটসনের বিপক্ষে খেলছিল, তখন আমি টিভি সেটের সামনে চিৎকার করে যাচ্ছিলাম। বার বার বলছিলাম, কামঅন সেরেনা, তুমি পারবে। কিন্তু ভেনাসের ব্যাপারে একটা কথা না বললেই নয়, তাকে প্রচণ্ড ভালোবাসি। তার খেলার ধরন দেখতে ভালোবাসি। আমি যখন পাবলিক কোর্টে আমার বোনের সঙ্গে অনুশীলন করি অনেকেই বলে, ওই দেখ আমাদের সেরেনা-ভেনাস। কিন্তু আমি আবারো বলবো আরেকটা সেরেনা-ভেনাস কোর্টে দেখা যাবে না।

ওসাকা আরও যোগ করেন, আমি মনে করি বিশ্ব টেনিসের জন্য তারা দুই বোন সত্যিই অনুপ্রেরণা, আদর্শ। অনেকেই বলে আমি পরবর্তী ভেনাস কিংবা সেরেনা, এটাও বাড়িয়ে বলা। তারা লিজেন্ড, তাদের মতো আর কেউ হতে পারবে না।

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন