শনিবার ২৩ মার্চ, ২০১৯ ইং , ৯ চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৪ রজব, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

‘প্রতিশোধের উন্মাদনায়’ হামলা চালায় ব্রেন্টন

মার্চ ১৫, ২০১৯ | ৪:১৩ অপরাহ্ণ

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে বন্দুক হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট (২৮) ছিলেন কট্টর উগ্রপন্থী। জন্মসূত্রে অস্ট্রেলিয়ার এই নাগরিক ঘৃণা করতো ইউরোপে বসবাসকারী মুসলমানদের। ব্রেন্টন শুধু  ‘প্রতিশোধের উন্মাদনায়’ মসজিদে এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে  বলা হয়েছে। খবর গার্ডিয়ানের।

ব্রেন্টনের লেখা ৭৪ পাতার এক উগ্রবাদী ইশতেহার অনলাইনে প্রকাশিত হয়েছে, যেটির নাম সে হয়েছিল, ‘দ্য গ্রেট রিপ্লেসমেন্ট’। হামলাকারী নিজেকে অস্ট্রেলিয়ার নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের একজন শ্বেতাঙ্গ হিসেবে পরিচয় দিয়েছে। ব্রিটিশ কবি ডায়লান থমাসের, ‘ডোন্ট গো জেন্টল ইন্টু দ্যাট গুড নাইট’ কবিতার কয়েকটি লাইন দিয়ে ব্রেন্টন তার এই হত্যার ইশতেহার শুরু করে।

বিজ্ঞাপন

হামলা চালানোর ইচ্ছা হিসেবে ব্রেন্টন ওই লেখায় জানায়, মুসলমানদের প্রতি ঘৃণা জানিয়ে উল্লেখ করে, আমাদের ভূমি কখনো তাদের হবে না। তারা আমাদের কখনো সরিয়ে দিতে পারবে না। ইউরোপে তাদের কারণে হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ইসলাম ধর্মবলম্বী ‘দাস’রা ওসব ভূমি দখল করে নিয়েছে।

গাড়িতে করে ও বন্দুকসহ মসজিদে হামলার ভিডিও অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচার করে হামলাকরী ব্রেন্টন। ভিডিওতে সে দাবি করে, এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা।

তবে এই ভিডিওটি সাধারণ মানুষদের দেখতে নিষেধ করেছেন মনোবিদরা। ফেসবুকও ভিডিওটি রিমুভ করতে চেষ্টা করছে বলে জানিয়েছে।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন