শনিবার ২৩ মার্চ, ২০১৯ ইং , ৯ চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৪ রজব, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ভেসে আসছিল.. গোলাগুলি আর চিৎকার, হুইলচেয়ারে থেকেও বেঁচে যান ফরিদ

মার্চ ১৫, ২০১৯ | ৬:২৫ অপরাহ্ণ

।। আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।।

সময় যত বাড়ছে নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মানবিক গল্পগুলো ততটাই প্রকট হচ্ছে। হামলার দিন শুক্রবার দুপুরে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি পার্কের আল-নূর মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন ফরিদ আহমেদ নামে এক মুসল্লি। শারীরিকভাবে অক্ষম এই ব্যক্তি গোলাগুলির সময় নিজের হুইলচেয়ারে থাকলেও ভাগ্যগুণে বেঁচে যান। খবর বিবিসির।

ফরিদ আহমেদ জানান, আমি মসজিদের ভিতরেই ছিলাম। পাশের রুমে ইমাম খুতবা পড়ছিলেন। মুসল্লিরা মনোযোগ দিয়ে তা শুনছিল।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, সবকিছু ছিল শান্ত। ঠিক সে সময়ে অস্বাভাবিক কিছু ঘটলো। হঠাৎ প্রচণ্ড গোলাগুলি শুরু হলো। ইমামের কক্ষটি থেকে হামলা শুরু হয়। আমি দেখলাম সবাই এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করছে। কারো কারো শরীরে গুলির চিহ্ন, কারো গায়ে রক্ত।

ফরিদ বলেন, আমি শুধু ওপাশটায় গুলির শব্দ শুনছিলাম। শুধুই গুলির শব্দ। এভাবে চলছিল ৬ মিনিটের বেশি সময় ধরে।

তিনি আরও বলেন, সেসময় ভেসে আসছিল, চিৎকার ও কান্নার শব্দ। আমি অনেকের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেছি। দেখেছি কেউ পালিয়ে যাচ্ছে। হুইলচেয়ারে বসে থাকা ছাড়া আমার উপায় ছিল না। আর আমি পালাতেও চাচ্ছিলাম না। আমি ভাবছিলাম আমার স্ত্রী-মেয়েরা কেমন আছে!

ফরিদ জানান, আমি বুঝতে পারলাম অবস্থা সত্যিই ভয়াবহ। কেউ কেউ আমাকে আবারও বলল, আমাকে পালিয়ে যেতে।

তিনি বলেন, যেখানে আমার গাড়ি রাখা আছে আমি কোনোমতে সেখানে গেলাম ও গাড়ির পিছনে আশ্রয় নিলাম।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন