বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মোস্তাফিজ, সাব্বিরদের বউরা বুঝবেন তো?

মার্চ ২১, ২০১৯ | ৪:৪৩ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশের ক্রিকেটাঙ্গনে যেন বিয়ের ধুম পড়ে গেছে। গত রোববার আকদ সেরেছেন সাব্বির রহমান। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) মেহেদি হাসান মিরাজের আকদ, এরপর শুক্রবার (২২ মার্চ) মোস্তাফিজুর রহমানের বিয়ে। আর ১৯ এপ্রিল গাটছড়া বাঁধছেন মুমিনুল হক। বিষয়টিকে বেশ ইতিবাচকভাবেই দেখছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন। তার মতে বিয়ে করলে ক্রিকেটাররা নিয়মানুবর্তী ও দায়িত্ববান হয়ে ওঠে। যা তাদের মাঠের ক্রিকেটে মনোযোগি হতে সাহায্য করে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সারাবাংলার সঙ্গে একান্ত আলোচনায় একথা বলেন তিনি।

হাবিবুল বাশারের মতে, ‘ভালো তো। বিয়ে করে ফেললে এক দিক দিয়ে ভালো হয়। অনেক ডিসিপ্লিন থাকা যায়। মাথার ওপর দায়িত্ব আসে। এতে করে খেলার প্রতি ক্রিকেটাররা দায়িত্ববান হয়, যেটা ক্রিকেটে সাহায্য করে। সেদিক থেকে বিবেচনা করলে এটা ক্রিকেটের জন্য ভালো। আমি ইতিবাচকভাবেই দেখি।’

প্রতিটি ক্রিয়ারই একটি সমান ও বিপরীতি প্রতিক্রিয়া থাকে। মুমিনুল, মোস্তাফিজদের বিয়ে নিয়ে দারুণ ইতিবাচক হাবিবুল বাশার এর নেতিবাচক দিকটিও মনে করিয়ে দিলেন। যেহেতু এরা সবাই জাতীয় দলের ক্রিকেটার সেহেতু দেশের হয়ে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এবং টুর্নামেন্টে অংশ নিতে লম্বা সময় দেশের বাইরে থাকতে হয়। কখনো তার স্থায়ীত্ব দুই মাসও হয়ে থাকে।

বিজ্ঞাপন

আবার দেশের মাটিতে খেলা হলেও পরিবার থেকে একই দুরত্ব বজায় রাখতে হয়। যেহেতু তখন তাদের টিম হোটেলে অবস্থান করতে হয়। কাজেই ক্রিকেটারদের স্ত্রীদের প্রতি সুমন আহ্বান জানালেন যেন এই ক্রিকেটীয় বিষয়টি তারা বোঝেন।

‘ক্রিকেটারদের বউদের তাদের জীবন সঙ্গীদের বুঝতে হবে। তারা যদি ক্রিকেটারকে না বোঝে, সে ক্ষেত্রে দাম্পত্য জীবনে সমস্যা হতে পারে। কারণ একজন ক্রিকেটারের ব্যক্তিগত জীবন অনেক কম। ট্যুর থাকে দেড়-দুই মাস। ঢাকায় থাকলে টিম হোটেলে থাকতে হয়, মাঠে থাকতে হয়। তাই বউকে এই জিনিসটা বুঝতে পারা খুব গুরুত্বপূর্ণ। যখনই তারা বোঝে না, তখনই ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা হয়। আর বুঝতে পারলে খুবই ভালো।’

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএন

**বিয়ে করছেন মোস্তাফিজ!

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন