বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ১২ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

বিশ্ব আবহাওয়া দিবস আজ

মার্চ ২৩, ২০১৯ | ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ

।। সারাবাংলা ডেস্ক ।।

আজ ২৩ মার্চ বিশ্ব আবহাওয়া দিবস। প্রতি বছর বাংলাদেশসহ বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার ১৯৩ টি সদস্য দেশ ও স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলগুলো এই দিনটি পালন করে থাকে। এবার ‘বিশ্ব আবহাওয়া দিবস ২০১৯’-এর প্রতিপাদ্য বিষয়, ‘সূর্য, পৃথিবী ও আবহাওয়া’।

আবহাওয়া দিবস উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খবর বাসসের।

বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, ‘বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে আবহাওয়ার অস্বাভাবিক আচরণ এখন বিশ্বব্যাপী অনুভূত হচ্ছে। তাই জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিহ্রাসে সকল দেশের সমন্বয়ে টেকসই উদ্যোগ গ্রহণ ও আবহাওয়া, জলবায়ু ও পানি বিষয়ক তথ্যের আদান-প্রদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও জলবায়ু সম্পর্কিত ঝুঁকি মোকাবিলাসহ জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতি উপশমে জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন, সচেতনতা বৃদ্ধি ও আবহাওয়ার গতি প্রকৃতি সম্পর্কে স্বচ্ছ ও সঠিক ধারণা পাওয়া সম্ভব হবে।’

আবহাওয়া দিবসের সফলতা ও সার্থকতা কামনা করেন রাষ্ট্রপতি আশা করেন, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আবহাওয়া ও জলবায়ু সংক্রান্ত তথ্য তৃণমূল পর্যায়ে বিশেষত কৃষকের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, ‘বর্তমানে সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড়, কালবৈশাখী ঝড়, বন্যা, খরা, তাপ প্রবাহ, শৈত্য প্রবাহ এবং সমুদ্রের উপরিতলের উচ্চতা বৃদ্ধির মতো চরম ঘটনাগুলোর সংখ্যা, তীব্রতা ও মাত্রার মধ্যে অস্বাভাবিক বৈশিষ্ট্য পরিলক্ষিত হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, পৃথিবীর প্রাকৃতিক শক্তির ভারসাম্য রক্ষা, আবহাওয়া, জলবায়ু এবং একই সাথে সমগ্র পৃথিবীর পানিচক্র ও জলবায়ু ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণে সূর্য ও পৃথিবীর মিথস্ক্রিয়া গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এ পরিপ্রেক্ষিতে দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘সূর্য, পৃথিবী ও আবহাওয়া’ খুবই যথাযথ হয়েছে ।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর অন্যান্য বছরের ন্যায় এবারও যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করছে। ঢাকায় আবহাওয়া অধিদফতর, আবহাওয়া সংক্রান্ত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ও প্রামাণ্যচিত্র জনসাধারণের জন্য প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করেছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কদ্বীপ সজ্জিত করা ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়াও কক্সবাজার, খেপুপাড়া, রংপুর ও মৌলভীবাজারের অপারেশনাল ইউনিট ও রাডার স্টেশনসমূহ জনসাধারণের প্রদর্শনের জন্য উন্মুক্ত রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন আবহাওয়া দিবস উপলক্ষে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান সম্প্রচার করবে। এছাড়া দেশের দৈনিকগুলো প্রকাশ করেছে বিশেষ ক্রোড়পত্র।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন