বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ইং , ১২ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ শাবান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর কবরস্থানে শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র দাফন

মার্চ ২৪, ২০১৯ | ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

দেশ বরেণ্য সংগীতশিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র দাফন হবে বনানীর সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর কবরস্থানে। রোববার (২৪ মার্চ) বাদ জোহর দাফন করা হবে শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র মরদেহ।

তার পথম নামাজে জানাজা হবে বারিধারার পার্ক মসজিদে। শনিবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে ১১টার দিকে বারিধারার নিজ বাসায় হার্ট অ্যাটাকে মারা জান শাহনাজ রহমতউল্লাহ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর।

শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র স্বামী মেজর (অব.) আবুল বাশার রহমতউল্লাহ। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে। স্বামী মেজর  (অব.) আবুল বাশার রহমতউল্লাহ এখন ব্যবসায়ী, মেয়ে নাহিদ রহমতউল্লাহ থাকেন লন্ডনে আর ছেলে এ কে এম সায়েফ রহমতউল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের এক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করে এখন কানাডায় থাকেন।

বিজ্ঞাপন

বড় ভাই আনোয়ার পারভেজ, শাহনাজ রহমতউল্লাহ এবং জাফর ইকবাল

শাহনাজ রহমত উল্লাহর বড় ভাই প্রয়াত আনোয়ার পারভেজ। ছিলেন সুরকার, সংগীত পরিচালক, ও শব্দসৈনিক। বিবিসির জরিপে সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ২০টি বাংলা গানের মধ্যে রয়েছে তার সুরকরা তিনটি গান। গানগুলো হলো ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’, ‘একবার যেতে দে না’ এবং ‘একতারা তুই দেশের কথা’।

শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র গাওয়া চারটি গান রয়েছে বিবিসি’র জরিপ করা সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ২০টি বাংলা গানের মধ্যে। যার মধ্যে ৯ নম্বরে আছে ‌‘এক নদী রক্ত পেরিয়ে’, ১৩ নম্বরে আছে ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’, ১৫ নম্বরে ‘একবার যেতে দে না আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়’ এবং ১৯ নম্বরে রয়েছে ‘একতারা তুই দেশের কথা’ গানটি।

শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র আরেক ভাই জাফর ইকবাল। দেশের একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ও সংগীতশিল্পী। সংগীত দিয়ে শুরু করলেও পরে নায়ক হিসেবে পরিচিতি পান তিনি। স্বাধীনতা যুদ্ধেও অংশগ্রহণ করেন এই চিত্রনায়ক।

আরও পড়ুন: না ফেরার দেশে শিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ

সারাবাংলা/পিএ

সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর কবরস্থানে শাহনাজ রহমতউল্লাহ’র দাফন
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন