শুক্রবার ১৯ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৪ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

শিশিরের শুভেচ্ছা, জয় উপহার দিতে চায় অরেঞ্জ আর্মিরা

মার্চ ২৪, ২০১৯ | ১২:২৯ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

সম্প্রতি ইনজুরি কাটিয়ে আইপিএলের ১২তম আসরে খেলতে গেছেন সাকিব আল হাসান। টাইগারদের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলপতি সাকিব নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকতে পারেননি ইনজুরির কারণে। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ফাইনালে খেলার পর থেকেই দীর্ঘ বিরতি দিয়ে আজ মাঠে নামতে পারেন। আইপিএলে আজ তাকে মাঠে দেখা যেতে পারে।

রোববার (২৪ মার্চ) ৩২ বছরে পা দিয়েছেন সাকিব। আর এই দিনেই আইপিএলের দ্বাদশ আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে তার দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। দলের সেরা অলরাউন্ডারের জন্মদিনটাকে কিভাবে রাঙাবে অরেঞ্জ আর্মিরা?

বাংলাদেশের একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএলে নিয়মিত খেলছেন ১৯৮৭ সালের ২৪ মার্চ জন্ম নেওয়া সাকিব। শুরুর দিকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেললেও গত আসর থেকে খেলছেন হায়দ্রাবাদের জার্সি গায়ে। আজ বিকেল সাড়ে ৪টায় ইডেন গার্ডেনসে তার সাবেক দল কলকাতার বিপক্ষে মাঠে নামবে হায়দ্রাবাদ। ম্যাচের আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে সাকিবকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানায় ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। জন্মদিনে সাকিবকে জয়ই উপহার দিতে চায় হায়দ্রাবাদ।

বিজ্ঞাপন

সাকিব খেলুক বা না খেলুক, তার জন্মদিনে জয় উপহার দেয়ার কথাই জানিয়েছে হায়দ্রাবাদ কর্তৃপক্ষ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সাকিবকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর সময় দলের বাকিদের কাছে জয়ের আবদারই জানিয়েছে গতবারের রানার্সআপরা।

দলটির অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে লেখা হয়েছে, শুভ জন্মদিন @এসএএইচ৭৫ অফিসিয়াল। জন্মদিন উদযাপনের জন্য কী অসাধারণ এক দিন এটি! সাকিবের জন্য সবচেয়ে সেরা উপহার কী হবে তা আপনারা জানেন, তাই নয় অরেঞ্জ আর্মি?

আইপিএলে ৬০ ম্যাচ খেলে ৭৩৭ রান করেছেন সাকিব। আর বল হাতে নিয়েছেন ৫৭ উইকেট।

এদিকে, সাকিবের জন্মদিনে তার স্ত্রী শিশির নিজের ফেসবুকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অন্যভাবে। ভালোবাসার বহিপ্রকাশে তিনি লিখেছেন, You are my tomorrow you are my today! When we first met it wasn’t love at first sight it was love for eternity a promise to hold on to each other no matter what, to grow old together you’ve always been the rock pillar of us protecting as a shield! You were born strong happy Happy Birthday to you who has a heart of gold. I love you.

নিজের ছোট্ট ক্যারিয়ারে সাকিব গড়েছেন এমন সব কীর্তি যা তাকে গ্রেটদের সঙ্গে তুলনায় নিয়ে আসে। উইজডেন সাময়িকীর বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন সাকিব। আইপিল, শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট লিগ, বিগব্যাশ, কাউন্ট্রি ক্রিকেট- কী খেলেননি এই ক্রিকেট তারকা। বাংলাদেশি হয়ে এ রকম অর্জন শুধু তার একারই। ছিলেন ওয়ানডের সবচেয়ে বেশি সময় ধরে এক নম্বর অলরাউন্ডার। সঙ্গে টেস্টেরও সেরা অলরাউন্ডারের খেতাব ঝুলিতে পুরেছেন। ২০১১ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্বও দিয়েছিলেন।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সূচনা হয় বাঁহাতি এই অলরাউন্ডারের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একই বছরের নভেম্বরে টি-টোয়েন্টিতে এবং ২০০৭ সালে ভারতের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্ট দিয়ে অভিষেক হয় সাকিব আল হাসানের।

১৯৫টি একদিনের ম্যাচ খেলে ৫ হাজার ৫৭৭ রান সংগ্রহ করেছেন সাকিব। অন্যদিকে বোলিং করে নিয়েছেন ২৪৭ উইকেট। ২০০৭ সালে ভারতের বিপক্ষে চট্টগ্রামে টেস্টে অভিষেক হয় সাকিবের। ক্রিকেটের লংগার ভারসন টেস্টে তারকা এই ক্রিকেটার ৫৫ ম্যাচে ৩ হাজার ৮০৭ রান সংগ্রহ করেছেন। আর বোলিংয়ে নিয়েছেন ২০৫ উইকেট। ৭২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ১৪৭১ রান করার পাশাপাশি বল হাতে নিয়েছেন ৮৮ উইকেট। আর সব ধরনের টি-টোয়েন্টিতে ২৯৫ ম্যাচ খেলে ৪৭৫৪ রান এবং ৩৪৪ উইকেট নিয়েছেন সাকিব। বেস্ট বোলিং ফিগার ৬ রানে ৬ উইকেট।

** আজকের দিনটি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবের

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন