বুধবার ১৭ জুলাই, ২০১৯ ইং , ২ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

নামেই আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ

মার্চ ২৪, ২০১৯ | ৪:০১ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

সেই উত্তাপ নেই, সেই দ্বৈরথ ও নেই। দু’দলের ২২ গজের লড়াইয়ের ঝাঁঝ উবে গেছে সেই কবে! তাই গ্যালারিতেও আর উল্লাসের ঢেউ ওঠে না। মর্যাদার লড়াইটা এখন কেবলই একপেশে। যেন আবাহনীতে স্থায়ী আবাস গড়েছে। আর মোহামেডান টিকে আছে কেবলই ঐতিহ্যের তকমা গায়ে মেখে। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ মানেই যেন আকাশী-নীলদের জয়জয়কার।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে বিগত ৫ মৌসুমে দু’দলের ৫ বারের মোকাবেলায় ৩ বারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে আবাহনী। পক্ষান্তরে মোহামেডান শিবিরে জয় ধরা দিয়েছে দু’বার। তার চাইতে মর্মান্তিক হলো ২০১৩ সাল থেকে আজ অব্দি আবাহনী শিরোপা ঘরে তুলেছে ২ বার। কিন্ত মোহামেডান এখনো শিরোপার মুখ দেখেনি।

তেমনি আরেকটি নিরুত্তাপ ম্যাচে সোমবার (২৫ মার্চ) আবার মুখোমুখি হচ্ছে চির বৈরী এই দুই দল। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ৯টায়।

তবে ম্যাচটিকে সামনে রেখে আবাহনীর মধ্যে উত্তেজনার লেশমাত্র দেখা গেল না। আবাহনী অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের নাকি মনেই ছিলো না, রাত পোহালেও চির বৈরী দলটিকে মোকাবেলা করতে হবে। ‘আসলে সকালে অনুশীলনে আসার পর মনে হয়েছে কাল মনে হয় আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ।

আরও পড়ুন: ‘হ্যাপি বার্থডে চ্যাম্প’

বিজ্ঞাপন

আবাহনী-মোহামেডান সবসময়ই শুনে আসছি খুব প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটা ম্যাচ হয়। আমাদের দল ভালো। মোহামেডানও দল হিসেবে ভালো। একটা ম্যাচ হয়তো হারছি। তবে আমাদের দল খুব ভালো পজিশনে আছে। আমরা আসলে ওদের দিকে ফোকাস না করে ম্যাচের দিকে ফোকাস করছি।’

শুধু মোসাদ্দেকই কেন? দল হিসেবে আবাহনী ২০১৮-১৯ মৌসুমে সেরা একথা যে কেউই বলবেন। আবাহনীর স্কোয়াড তো তাই বলছে। একাদশে খেলা ৮ জনই বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলে থাকেন। সাব্বির রহমান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাজমুল ইসলাম অপু ও রুবেল হোসেন মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সৌম্য সরকার। এমন দাপুটে স্কোয়াডে ৫ ম্যাচের ৪টিতে জয় নিয়ে টেবিলের শীর্ষে কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের শিষ্যরা।

তবু মোহামেডান কোচ মঞ্জুরুল ইসলামের কথা বেশ ঝাঁঝাঁলোই শোনাল। ৫ ম্যাচের ৩ জয়ে টেবিলে ৫ নাম্বারে থাকা দলটি টপারদের টেক্কা দিতে বেশ মুখিয়ে আছে। ‘কালকের ম্যাচটি কোন ফটোকপি হবে না। ম্যাচটি সত্যিকারের একটি ক্রিকেট ম্যাচ হবে।’

তবে তাই হোক। অভিষেক মিত্র, আব্দুল মজিদ, মোহাম্মদ আশরাফুল, ইরফান শুক্কুর, নাদিফ চৌধুরী, সোহাগ গাজীদের নিয়ে গড়া মোহামেডান আরেকবার জয়ের বুনো উল্লাসে মেতে উঠুক। মাঠের লড়াইয়েই প্রমান করুক, দেশের ঐতিহ্যবাহী দলটি এখনো ফুরিয়ে যায়নি।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএন

Advertisement
বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন