শুক্রবার ১৯ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৪ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ভৈরবে ৩ কেন্দ্রে স্থগিত, বাকি কেন্দ্রগুলোতে ভোট শান্তিপূর্ণ

মার্চ ২৪, ২০১৯ | ৯:০১ অপরাহ্ণ

লোকাল করেসপন্ডেন্ট

ভৈরব: পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ভৈরব উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার ৮০টি কেন্দ্রের মধ্যে ব্যালট পেপার ছিনতাই ও সিল দেওয়ার অভিযোগে তিনটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে উপজেলা নির্বাচন অফিস।

রোববার (২৪ মার্চ) সকাল ৮টায় উপজেলার ৮০টি কেন্দ্রে একসঙ্গে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট নেওয়ার পর শুরু হয় গণনা।

ভৈরব উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহবুব আলম জানান, জোরপূর্বক ব্যালট পেপার ছিনতাই ও ব্যালটে সিল দেওয়ার অভিযোগে শহরের জগন্নাথপুর নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চন্ডিবের হাজি আসমত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শ্রী-নগর ইউনিয়নের বধূনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়— এই তিনটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এর বাইরে উপজেলায় কোনো ধরনের সহিংসতা ছাড়াই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মাহবুব আলম জানান, সকাল থেকে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও ভোটাররা যেন নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে ভোট দিতে পারে সেজন্য কেন্দ্রের বাইরে তিন প্লাটুন বিজিবি, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের তিনটি ভ্রাম্যমাণ টিম এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের একটি টিমসহ চারটি মোবাইল টিম ও র‌্যাব-পুলিশ সদস্যরা টহলে ছিলেন এবং এখনও রয়েছেন। ওই তিনটি কেন্দ্র ছাড়া বাকি কেন্দ্রগুলোতে কোনো সহিংসতা বা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ভোটাররাও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিতে পেরে খুশি হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এই উপজেলায় আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব মো. সায়দুল্লাহ মিয়া (নৌকা), বিদ্রোহী প্রার্থী আবুল মনসুর (মোটর গাড়ি) ও বিদ্রোহী আরেক প্রার্থী অলিউল ইসলাম অলি চেয়ারম্যান পড়ে লড়াই করছেন। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে চার জন ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিন জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন