বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ কনসাল জেনারেলকে কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্টের সম্মাননা

মার্চ ২৮, ২০১৯ | ১১:২১ পূর্বাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক

নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসাকে বিশেষভাবে সম্মানিত করলেন কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্ট মেলিন্ডা কাটজ। মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে এক বিশেষ প্রতিনিধির মাধ্যমে ফয়জুননেসাকে ’ডিকলারেশন অব অনার’ প্রদান করেন কাটজ। বাংলাদেশের কোনো কনসাল জেনারেল কুইন্স বোরোর প্রেসিডেন্টের এই সম্মাননা পাওয়ার ঘটনা এই প্রথম। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানিয়েছে নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশের কনস্যুলেট জেনারেল।

বিজ্ঞাপন

কাটজ তার সম্মাননায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট প্রদত্ত কমিউনিটির সেবার মান বৃদ্ধি ও বাংলাদেশি-আমেরিকান কমিউনিটির সাথে নিবিড় যোগাযোগ স্থাপনে অগ্রণী ভূমিকা পালনে ফয়জুননেসার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

উল্লেখ্য, ফয়জুননেসা নিউইয়র্কে কনসাল জেনারেল হিসেবে যোগদানের সঙ্গে সঙ্গে কুইন্স বোরো প্রেসিডেন্ট অফিসের সাথে যোগাযোগ ও সহযোগিতা বৃদ্ধি করেন। তিনি কুইন্স বোরোতে স্থায়ী শহীদ মিনার স্থাপনের প্রস্তাবনা উপস্থাপনা করেন ও এ বিষয়ে বোরো প্রেসিডেন্টের সহযোগিতা কামনা করেন।

কনসাল জেনারেল নিউইয়র্কে বিভিন্ন এয়ারপোর্টে অন্যান্য ভাষার সাথে বাংলা ভাষায় ‘স্বাগতম’ অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি বাস্তবায়নের জন্য আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালাতে বোরো প্রেসিডেন্টকে অনুরোধ জানান। সম্প্রতি কুইন্স বোরোর প্রেসিডেন্ট অফিস আয়োজিত বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

কুইন্স বোরোতে অবস্থিত কুইন্স লাইব্রেরির সাথেও কনস্যুলেট জেনারেল, নিউইয়র্ক যোগাযোগ বৃদ্ধি করেছে। ইতোমধ্যে, প্রথমবারের মতো কুইন্স লাইব্রেরিকে সঙ্গে নিয়ে কনস্যুলেট জেনারেল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২১শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস পালন করে।

এদিকে, কনসাল জেনারেল কেন্দ্রীয় কুইন্স লাইব্রেরীতে ’বাংলা কর্নার’ স্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু করেছেন ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ’কারাগারের রোজনামচা’ হস্তান্তর করেন।

সারাবাংলা/আরএ

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন