সোমবার ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ ইং

বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ: বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী

এপ্রিল ১৪, ২০১৯ | ১০:৪০ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

নারায়ণগঞ্জ: বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) বলেছেন, বাঙালির হাজার বছরের প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। এই উৎসব বাঙালি জাতির প্রাচীন গ্রামীণ ঐতিহ্য তুলে ধরে।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা চত্ত্বরে মঙ্গল শোভাযাত্রা ও বর্ণাঢ্য র‍্যালি শেষে বৈশাখী মেলার উদ্বোধনী বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, ‘বাংলা নববর্ষের প্রধান আকর্ষণ হলো মঙ্গল শোভাযাত্রা। এই মঙ্গল শোভাযাত্রা জাতিকে সুসংহত করে এবং জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ থেকে বিরত রাখে। বাংলা নববর্ষ ১৪২৬-কে বরণ করে নিতে তাই এই মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে রূপগঞ্জসহ সারা বিশ্বের বাঙালিরা উৎসবে মেতেছে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন। উনার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন সেই স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বৈশাখী ভাতা চালু করেছেন। বাংলা নববর্ষ এখন অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে পালন হচ্ছে। প্রতিটি জেলা উপজেলা পর্যায়েও মঙ্গল শোভাযাত্রা হচ্ছে উৎসবমুখর পরিবেশে।’

তিনি বলেন, ‌বিএন‌পি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে দেশের মানুষ জঙ্গীবাদের কারণে শান্তিপূর্ণ ভাবে বর্ষবরন উৎসব পালন করতে পারে নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা জঙ্গীবাদ দমন করেছেন বলেই এখন দেশের মানুষ প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ পালন করতে পারছেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারাদেশে বর্ষবরণের আনন্দ আরও ত্বরান্বিত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগম সভাপতিত্ব করেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌসি আলম নীলা, উপজেলা নির্বাচন কমিশনার মাহাবুবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল আলম সিকদার, সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভুঁইয়া মাসুম, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবায়েত হাসান বাকিব ও মিরাজ মোল্লাসহ অনেকে।

এর আগে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬-কে বরণ করতে রূপগঞ্জে এক মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) এই শোভাযাত্রার নেতৃত্ব দেন। শোভাযাত্রাটি উপজেলা পরিষদ থেকে বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুড়াপাড়া স্টেডিয়ামে এসে শেষ হয়।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক মুড়াপাড়া স্টেডিয়ামে অনু‌ষ্ঠিত বর্ষবরন উৎসব ও সাংস্কৃ‌তিক অনুষ্ঠা‌নে যোগ দেন। এ সময় তি‌নি মুড়াপাড়া স্টেডিয়ামে বৈশাখী মেলার ষ্টলগু‌লি প‌রিদর্শন ক‌রেন। সকাল সা‌ড়ে ৮ টা থে‌কে স্টেডিয়ামে বর্ষবরন উৎসব ও ম‌নোজ্ঞ সাংস্কৃ‌তিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। তিন‌দিন ব্যা‌পি এই উৎসব প্র‌তি‌দিন সকাল থে‌কে শুরু হ‌য়ে চল‌বে সন্ধ্যা অব‌ধি পর্যন্ত। 

সারাবাংলা/এসবি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন