রবিবার ২১ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৬ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

‘ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, মেসিকে আটকানোর সময় দিয়েছেন’

এপ্রিল ১৮, ২০১৯ | ২:১৯ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি ফাইনালে স্প্যানিশ জায়ান্ট লিওনেল মেসির বার্সেলোনাকে পেয়েছে ইংলিশ ফেভারিট মোহামেদ সালাহর লিভারপুল। চলতি মৌসুমে নিজ নিজ প্রিমিয়ার লিগে দুর্দান্ত গতিতে ছুটছে দল দুটি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে টেবিলের শীর্ষে জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা আর স্প্যানিশ লা লিগায় টেবিলের শীর্ষে আরনেস্টো ভালভারদের শিষ্যরা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি ফাইনাল তাই হতে চলেছে হাইভোল্টেজ একটি ম্যাচ।

চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত খেলছেন বার্সার দলপতি মেসি। শেষ আটের ফিরতি লেগে আরেক ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে জোড়া গোল করেছেন আর্জেন্টাইন এই ফুটবল জাদুকর। নিজেদের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি পর্বে ৩-০ গোলে জিতেছে ভালভারদের শিষ্যরা। দুই লেগ মিলিয়ে ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে শেষ চারের টিকিট পায় পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা। প্রথম লেগে ১-০ গোলে জিতেছিল কাতালানরা।

এদিকে, নিজেদের মাঠে জিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছিল লিভারপুল। পোর্তোর বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি লেগে ৪-১ গোলে জিতে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-১ অগ্রগামিতায় শেষ চারে উঠেছে গতবারের রানার্সআপ লিভারপুল। অ্যানফিল্ডে প্রথম লেগে ২-০ গোলে জিতেছিল জার্গেন ক্লপের শিষ্যরা। ফিরতি লেগে সাদিও মানে, মোহামেদ সালাহ, রবার্তো ফিরমিনো আর ভার্জিল ফন ডাইকের গোলে সেমিতে উঠে প্রতিযোগিতার ২০০৫ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

লিভারপুলের কোচ ক্লপকে জিজ্ঞেস করা হয়, উড়ন্ত বার্সাকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়ে কেমন লাগছে? উত্তরে তিনি জানান, টানা দ্বিতীয়বার সেমি ফাইনালে উঠেছি। এটা আমাদের জন্য বিশেষ কিছু তো অবশ্যই। আমি মনে করি এটা দলের জন্য দারুণ একটি খবর। সেমিতে আমাদের প্রতিপক্ষ বার্সা। সত্যি বলতে কী আমি খুবই খুশি তাদের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পেয়েছি বলে। আমাদের যা আছে তা বার্সার বিপক্ষে লড়াই করার জন্য যথেষ্ট। প্রতিপক্ষ যেমনই হোক না কেন, আমরা তাতে ভীত নই।

বিজ্ঞাপন

এই মৌসুমে সর্বোচ্চ ৪৫ গোল করা মেসি আছেন দুর্দান্ত ছন্দে। প্রতিপক্ষের এমন জাদুকরকে কিভাবে আটকাবে লিভারপুল? এমন প্রশ্নে ক্লপ যোগ করেন, আমাদের পরের ম্যাচটি লিগের ম্যাচ, যেখানে আমাদের প্রতিপক্ষ কার্ডিফের দলটি। আর এই মুহূর্তে আমি তাদের নিয়েই ভাববো, বার্সাকে নিয়ে না কিংবা মেসিকে নিয়ে না। যথেষ্ট সময় আছে মেসিকে নিয়ে ভাববার। অনেক দল তাকে নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করেছে। অনেকে তাকে আটকাতে পেরেছে, বেশির ভাগই তাকে আটকাতে পারেনি। আমিও তাকে আটকে রাখার পথ বের করবো। তবে, সেটা এখনই না। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে, আমাকে আরও কয়েকটি রাত মেসিকে আটকানোর পথ বের করার সময় দিয়েছেন। বার্সা কিংবা মেসিকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাওয়ার আগে আমার হাতে সময় আছে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় সেমি ফাইনালে আগামী ৩০ এপ্রিল বার্সার মাঠে আতিথ্য নেবে লিভারপুল। ৭ মে সেমি ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে লিভারপুলের মাঠে খেলতে নামবে বার্সা।

সারাবাংলা/এমআরপি

** ট্রেবলের দিকে আরও একধাপ এগিয়ে বার্সা

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন