বিজ্ঞাপন

ভারী বর্ষণ ও বৈরী আবহাওয়ার কারণেই বিমান দুর্ঘটনা: মিয়ানমার

May 9, 2019 | 3:01 am

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভারী বর্ষণ ও বৈরী আবহাওয়ার কারণেই ঢাকা-ইয়াংগুন রুটের বাংলাদেশ বিমানের একটি উড়োজাহাজ (বোমবারডিয়ার সিরিজের ড্যাস ৮/৪০০, ফ্লাইট বিজি ০৬০) দুর্ঘটনার শিকার হয়। বুধবার (৮ মে) সন্ধ্যা ৬টা ৫১ মিনিটে ইয়াংগুন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে দূরে আছড়ে পড়ে বিমানটি। মিয়ানমারের ইয়াংগুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ (ওয়াইআইএ) এক বার্তায় এই তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইয়াংগুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উড়োজাহাজটি ইয়াংগুন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ভারী বর্ষণ ও বৈরী আবহাওয়ার শিকার হয়। বৃষ্টির ঝাপটা আর বাতাসের গতির কারণে দৃষ্টিসীমা অস্পষ্ট হয়ে যায়। এমন অবস্থায় উড়োজাহাজটি অবতরণ করতে গেলে রানওয়ে থেকে দূরে আছড়ে পরে।

তারা জানায়, এই ঘটনায় এটিসি’র (এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল) নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়। সঙ্গে সঙ্গেই বিমানের যাত্রী ও ক্রু সদস্যদের উদ্ধার করে চিকিৎসাসহ প্রয়োজনীয় সেবা দেওয়া হয়। ওই উড়োজাহাজে ৩০ জন যাত্রী, ৬ জন ক্রু সদস্যসহ মোট ৩৬ জন ছিল।

বিজ্ঞাপন

তবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এক বার্তায় জানিয়েছে, ওই উড়োজাহাজটিতে ২৯ জন যাত্রী, ২ জন পাইলট ও ২ জন কেবিন ক্রুসহ মোট ৩৩ জন ছিল।

ইয়াংগুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, মিয়ানমারের বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (ডিসিএ) ও উড়োজাহাজ দুর্ঘটনা সংক্রান্ত তদন্ত সংস্থার (এআইআইবি) প্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ইতোমধ্যে ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি প্রতিবেদন দিলে দুর্ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, বাংলাদেশ বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানান, বুধবার রাত ১১টা ২৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশের বিশেষ একটি উড়োজাহাজ ইয়াংগুনের পথে রওনা হয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত উড়োজাহাজের ১৮ জন যাত্রী বৃহস্পতিবার ভোরে ওই উড়োজাহাজে করে ঢাকায় ফিরবে। পাশাপাশি বিশেষ ওই উড়োজাহাজে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের একটি বিশেষজ্ঞ দলও ইয়াংগুন যাচ্ছে। তারা দুর্ঘটনার বিষয়টি খতিয়ে দেখবে।

সারাবাংলা/জেআইএল/আরএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন