বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৩ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

দা হাতে চড়াও ‘মাতাল’ : চারজনকে কুপিয়ে জখম, ১ জনকে খুন

মে ১০, ২০১৯ | ১০:১৪ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীতে এক যুবকের দায়ের কোপে নারীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া গুরুতর জখম হয়েছেন আরও চারজন। শুক্রবার (১০ মে) রাত পৌনে ৮টার দিকে আকবর শাহ থানাধীন উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

আকবর শাহ থানা পুলিশ জানিয়েছে, ওই যুবক মাতাল ছিলেন। অতিরিক্ত মদ পানের পর শুক্রবার রাতে হাতে থাকা দা দিয়ে পাঁচজনকে কুপিয়ে জখম করেন সত্যজিৎ। এরপর জনরোষ থেকে বাঁচতে তিনি পুকুরে ঝাঁপ দেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির নায়েক শীলব্রত বড়ুয়া সারাবাংলাকে জানান, যুবকের দায়ের কোপে মারা যাওয়া নারীর নাম সন্ধ্যা রাণী (৬০)। তিনি উত্তর কাট্টলী বড়কালী বাড়ি এলাকার ধীরেন্দ্র চন্দ্রের স্ত্রী। হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক সন্ধ্যা রাণীকে মৃত ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে ডাকাতের গুলিতে গৃহকর্তার মৃত্যু

শীলব্রত বড়ুয়া আরও জানান, দায়ের কোপে আহত শান্তি নন্দী (৭০), দীপক দত্ত (৪৮), টিংকু দত্ত (৪৫) এবং প্রবীর তালুকদারকে (৪০) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে আকবর শাহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম উদ্দিন সারাবাংলাকে বলেন, ‘এলাকায় সত্যজিতের একটি ফার্মেসি আছে। যতটুকু জানতে পেরেছি, তিনি মাদকাসক্ত। অতিরিক্ত মদপানে মাতাল হয়ে তিনি কালীবাড়ির সামনে পাঁচজনকে কোপান। এর মধ্যে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।’

ওসি জানান, দা দিয়ে পাঁচজনকে কুপিয়ে জখম করার পর সত্যজিৎ জনরোষ থেকে বাঁচতে পুকুরে ঝাঁপ দেন। পুকুরে স্থানীয় লোকজনের ছোড়া ঢিলে সত্যজিৎ নিজেও আহত হয়েছেন।

ওসি জসিম উদ্দিন আরও জানান, আহত সত্যজিৎকে আটক করা হয়েছে। ডোপ টেস্টের জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর সত্যজিতের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সারাবাংলা/আরডি/এমএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন