সোমবার ২৭ মে, ২০১৯ ইং , ১৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

আলাবামায় গর্ভপাত বিরোধী বিল পাস, ধর্ষণের ক্ষেত্রেও নেই ব্যতিক্রম

মে ১৫, ২০১৯ | ১১:৩৮ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

গর্ভপাত নিষিদ্ধ করে বিল পাস করেছেন মার্কিন অঙ্গরাজ্য আলাবামার আইনপ্রণেতারা। মঙ্গলবার (১৪ মে) অঙ্গরাজ্যটির আইনসভার উচ্চকক্ষ সিনেট থেকে বিলটি পাস হয়। বিল অনুসারে, ধর্ষণ বা অজাচারের ক্ষেত্রেও থাকবে না কোনো ব্যতিক্রম। এমনকি কোনো চিকিৎসক যদি গর্ভপাত করান তাহলে তার সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ড হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আইনে পরিণত হলে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে কঠিনতম আইনগুলোর একটি হবে এটি। খবর বিবিসির।

পাস হওয়া বিলটি এখন অঙ্গরাজ্যটির রিপাবলিকান গভর্নর ক্যা আইভির কাছে যাবে। তিনি এতে স্বাক্ষর করলেই বিলটি আনুষ্ঠানিকভাবে আইনে পরিণত হবে। যদিও তিনি এতে স্বাক্ষর করবেন কিনা এ বিষয়ে কিছু বলেননি, তবে তিনি গর্ভপাত-বিরোধী হিসেবেই পরিচিত।

উল্লেখ্য, ১৯৭৩ সালে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট এক ঐতিহাসিক রায়ের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে গর্ভপাতকে বৈধতা দেন। আলাবামায় গর্ভপাত বিরোধী বিলটি পাস হলে সুপ্রিম কোর্টের ওই রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন।

বিলটির সমর্থক রিপাবলিকান সিনেটর ক্লাইড চ্যাম্বলিস বলেন, বিলটি আইনে পরিণত হলে তারা সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে ১৯৭৩ সালের গর্ভপাতকে বৈধ ঘোষণা করার রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন

চলতি মাসের শুরুতে আলাবামার আইনসভার নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে ৭৪-৩ ভোটে পাস হয় বিলটি। বিল অনুসারে, কেবলমাত্র মায়ের জীবন ঝুঁকিতে থাকলেই গর্ভপাতের অনুমোদন মিলবে।

এদিকে, বিলটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে ন্যাশনাল অরগানাইজেশন ফর উইমেন। তারা বলেছে গর্ভপাতের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা অসাংবিধানিক। এটা আসন্ন নির্বাচনে গর্ভপাত বিরোধী প্রার্থীদের সমর্থন বাড়ানোর জন্য একটি স্বচ্ছ অপচেষ্টা।

বিলটির পৃষ্ঠপোষক ও আলাবামার আইনপ্রণেতা টেরি কলিন্স বলেন, আমাদের বিল অনুসারে, মায়ের গর্ভে থাকা শিশুটিও একজন মানুষ।

এদিকে, বিলটির তীব্র সমালোচনা করেছেন ডেমোক্র্যাটরা। ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতা রজার স্মিথারম্যান বলেন, আমরা এই বিলের মাধ্যমে ধর্ষণ বা অজাচারের শিকার হয়ে গর্ভবতী হওয়া একজন ১২ বছর বয়সি মেয়েকে বলে দিচ্ছি, তোমার কাছে কোনো উপায় নেই।

সারাবাংলা/আরএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন