রবিবার ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ১০ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ জিলহজ, ১৪৪০ হিজরি

বিজ্ঞাপন

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার: সুপারিশ যাচ্ছে মন্ত্রণালয়ে

মে ১৫, ২০১৯ | ৫:১৮ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

চলচ্চিত্র নির্মাণকে উৎসাহ দিতে দেওয়া হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। সেই ধারাবাহিকতায় ২০১৭ ও ২০১৮ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য ছবি আহ্বান করে তথ্য মন্ত্রণালয়। দুই সাল মিলিয়ে মোট ৭৪টি ছবি জমা পড়েছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ২৮টি শাখায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য।

দুই মাসের মধ্যে ছবিগুলো দেখা শেষ করে বেশি নম্বর পাওয়া ছবির বিষয়ে সুপারিশ পাঠানোর কথা তথ্য মন্ত্রণালয়ে। মন্ত্রণালয়ের বেঁধে দেয়া সময় প্রায় শেষের দিকে। এরইমধ্যে জুরি বোর্ডের সদস্যরা সব ছবি দেখা শেষ করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জুরি বোর্ডের সদস্য নিজামুল কবীর।

তিনি বলেন, ‘আমরা জমা পড়া সবগুলো ছবি দেখেছি। আগামী সপ্তাহে সব বিভাগে বেশি নম্বর পাওয়া ছবি, অভিনয়শিল্পী, কলাকুশলীদের নাম পাঠাবো মন্ত্রণালয়ে। এক্ষেত্রে দুটি করে নাম পাঠাবো। একটি বেশি নম্বর পাওয়া, অন্যটি বিকল্প। ঈদুল ফিতরের আগে সব প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলতে চাই আমরা।’

২০১৭ ও ২০১৮ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দিতে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট জুরি বোর্ড কাজ করছে। এই ১৩ সদস্য বিশিষ্ট জুরি বোর্ডে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও চলচ্চিত্র) সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান সদস্য-সচিব হিসেবে এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (চলচ্চিত্র) ও বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক সদস্য হিসেবে দায়িত্বে আছেন।

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালের জুরি বোর্ডের সদস্যরা হলেন—ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব টেলিভিশন ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফিউল আলম ভূঁইয়া, সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী কোহিনুর আক্তার সুচন্দা, চলচ্চিত্র অভিনেতা ও প্রযোজক এমএ আলমগীর, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, চিত্রগ্রাহক পংকজ পালিত ও সঙ্গীত পরিচালক সুজেয় শ্যাম।

২০১৮ সালের জুরি বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন—ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব টেলিভিশন ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শফিউল আলম ভূঁইয়া, চলচ্চিত্র অভিনেতা ড. এনামুল হক, সঙ্গীতশিল্পী ফকির আলমগীর, দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত, গীতিকার ও সঙ্গীত পরিচালক হাসান মতিউর রহমান, অভিনেত্রী রওশন আরা রোজিনা, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার ও বাংলাদেশ চিত্রগ্রাহক সংস্থার যুগ্ম–মহাসচিব তপন আহমেদ।

সারাবাংলা/আরএসও/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন