বুধবার ২২ মে, ২০১৯ ইং , ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ছাত্রলীগের কমিটিতে শতাধিক ‘বিতর্কিত’, তালিকা আনছেন পদবঞ্চিতরা

মে ১৬, ২০১৯ | ১:১০ অপরাহ্ণ

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে ১৭ জন ‘বিতর্কিত’কে চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। তবে এই কমিটিতে পদবঞ্চিতদের অভিযোগ, কমিটিতে স্থান পাওয়া এমন ‘বিতর্কিত’ সদস্যের সংখ্যা শতাধিক। দুপুরেই এক সংবাদ সম্মেলনে তাদের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে সারাবাংলার সঙ্গে আলাপকালে পদবঞ্চিত একাধিক ছাত্রলীগ নেতা এসব তথ্য জানান।

আরও পড়ুন- প্রমাণ করুক, আমরাও সরে দাঁড়াবো: শোভন-রাব্বানী

বিজ্ঞাপন

ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক সাহেব বাবু সারাবাংলাকে বলেন, গতকাল (বুধবার) সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ১৭ জন ‘বিতর্কিত’র নাম প্রকাশ করেছেন। এর মাধ্যমে আমরা যে অভিযোগ তুলেছিলাম, সেটা সত্য প্রমাণিত হলো। তবে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে আশ্রয় পাওয়া বিতর্কিতদের সংখ্যা ১৭ জন নয়, এই সংখ্যা শতাধিক হবে।

পদবঞ্চিত নেতারা বলছেন, বিবাহিত, মাদকসেবী ও মাদক বেচাকেনায় জড়িত, ব্যবসায়ী, চাকরিজীবী, ছাত্রদলসহ অন্য সংগঠনের পদধারী, সংগঠনে নিষ্ক্রিয়দেরই তারা ‘বিতর্কিত’ বলে অভিহিত করছেন।

এর আগে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রোকেয়া হল শাখা ছাত্রলীগের গত কমিটির সভাপতি বি এম লিপি আক্তার, সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তিলোত্তমা শিকদার, বাংলাদেশ কুয়েত-মৈত্রী হলের সভাপতি ফরিদা পারভীনসহ আরও কয়েকজন সারাবাংলাকে বলেন, ৩০১ সদস্যের কমিটিতে শতাধিক বিতর্কিত নেতাকে স্থান দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, এই কমিটির অন্তত একশ নেতা রয়েছেন, যারা নিজ নিজ যোগ্য অনুযায়ী মূল্যায়িত হননি। তাই তারা পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আরও পড়ুন- ৩০১ সদস্যের কমিটি, পদত্যাগ করছেন ১০০ জন!

পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতারা বলছেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে তারা এই শতাধিক বিতর্কিত নেতার তালিকা প্রকাশ করবেন।

এর আগে, সোমবার ছাত্রলীগের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি ঘোষণার পরই ছাত্রলীগের একাংশ এই কমিটির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেন। তাদের অভিযোগ, যোগ্য ও ত্যাগীদের মূল্যায়ন না করে নিষ্ক্রিয়সহ ‘বিতর্কিত’দের পদ-পদবী দেওয়া হয়েছে। এ অভিযোগে তারা কমিটির প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন। মিছিলটি মধুর ক্যান্টিনে গেলে মারধরেরও শিকার হন তারা। পরে তারা মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে কমিটি থেকে অযোগ্যদের বের করে যোগ্যদের মূল্যায়ন করতে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেন।

আরও পড়ুন- ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা [তালিকাসহ]

এদিকে, মধুর ক্যান্টিনে মারামারির ঘটনায় ছাত্রলীগ তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। পরে বুধবার মধ্যরাতে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী সংবাদ সম্মেলন করে ঘোষণা দেন, ছাত্রলীগের কমিটিতে ১৭ জন ‘বিতর্কিত’ পাওয়া গেছে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অব্যাহতি দেওয়া হবে।

সারাবাংলা/কেকে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন