সোমবার ২৭ মে, ২০১৯ ইং , ১৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ভারত চ্যাম্পিয়নদের ভয় পাইয়ে দিয়েছিল যে বাংলাদেশি ফুটবলার!

মে ১৬, ২০১৯ | ৮:৫১ অপরাহ্ণ

।। স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট।।

ঢাকা: ৫ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচ জিতে নিয়েছে ঢাকা আবাহনী। সে ম্যাচে বেলফোর্ট, সাইঘানি আর মামুনের গোলে ভারত চ্যাম্পিয়ন চেন্নাইয়িন এফসিকে হারিয়ে এএফসির চূড়ান্ত পর্বে ওঠার আশা জিইয়ে রেখেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের দুর্দান্ত সব গোল দেখেছে দর্শক, খেলোয়াড় ও কোচরা।

তবে, বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বুধবার আবাহনীর ৩-২ ব্যবধানে এমন ‘মহাকাব্যিক জয়ের’ পেছনে সরাসরি যারা অবদান রেখেছেন তাদের কেউ ভয় ধরাতে পারেনি চেন্নাইয়িন এফসিকে।

দলের কোচ জন গ্রেগরির মুখে শোনা গেলো অন্য একটি নাম। ঢাকার ফুটবলে খুবই পরিচিত নামটি। না মামুন, জীবন বা সোহেল রানা নয়। জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার ও আবাহনীর লেফ্ট ব্যাক রায়হান হাসান।

দেশের ফুটবলটা যারা নিয়মিত ফলো করেন তারা জানবেন, বল হাতে থ্রোয়িংয়ে কতটা ভয়ংকর রায়হান। সেটাই নাকি ভয় ধরিয়ে দিয়েছে ভারতের ২০১৭-১৮ আইএসএল চ্যাম্পিয়নদের।

বিজ্ঞাপন

রায়হানের প্রশংসা করতে গিয়ে গ্রেগরি জানান, ‘একটা ম্যাচে অনেকগুলো থ্রো পায় একটি দল। সেখানে থ্রোয়িং থেকে যদি কোনও ফুটবলার পেনাল্টি বক্সের ভেতরে বল নিয়ে আসে তাহলে খুব সমস্যা হয়। রক্ষণে তখন চিন্তা করতে হয় কীভাবে সেটা সামাল দিয়ে বল ক্লিয়ার করতে হবে সঙ্গে কোনও খেলোয়াড়কে ফাউলও করা যাবে না।’

প্রেস কনফারেন্সে নামটা মনে করতে পারছিলেন না চেন্নাইয়িনের কোচ। একজন রায়হান বলে দিলে তার নাম উল্লেখ করে তিনি জানান, ‘রায়হান এই থ্রোতে বেশ ভয়ংকর।’

ভয়ংকর বলার কারণও আছে। রায়হানের থ্রো থেকে অনেকগুলো সুযোগ তৈরি করেছিল ঢাকা আবাহনী। একটি থ্রো থেকে তো মামুনুল ইসলাম মামুনের সেই ভলির গোলটাও এসেছে।

যদিও ঢাকার ফুটবলে এমন অনেক গোলের উৎস ডিফেন্ডার রায়হান হাসান। এবারের বিপিএলেও তিনি অনেকগুলো গোলের যোগানদাতা ছিলেন।

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন