মঙ্গলবার ২৫ জুন, ২০১৯ ইং , ১১ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপে ব্যাট-বলে সমান তালে লড়বে যারা (থিসারা পেরেরা)

মে ২১, ২০১৯ | ৭:৫৯ অপরাহ্ণ

বিশ্বকাপ ডেস্ক

দল যখন চাপের মুখে, ব্যর্থ হয়ে ফিরে গেছেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা, দলের জন্য তখন প্রয়োজন পড়ে একজন ত্রাতার। যে কিনা দলের বিপর্যয় সামলে দলকে একটি সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যান। অথবা যখন দ্রুত রান তোলার প্রয়োজন আর হাতে আছে খুব কম সময়। তখন প্রয়োজন ঝড়ো গতিতে রান তোলার মতো একজনকে। যে পারবে বিশাল ছক্কা মারতে, হোক না সেটি গুড লেন্থের কিংবা ফুলটস ডেলিভারি।

আবার দলের প্রয়োজনে যিনি হয়ে যাবেন পুরোদস্থর বোলার। যখন প্রতিপক্ষের জুটি ভাঙছে না, তখন বোলিংয়ে এসে তুলে নেবেন গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি। কিংবা দলের অন্যান্য বোলাররা যখন প্রতিপক্ষের রানের লাগাম টেনে ধরতে ব্যর্থ, ঠিক তখনই বল হাতে নিয়ে কৃপণ হয়ে যাবেন যিনি। অথবা শেষ ওভারে যখন বিপক্ষ দলের খুবই কম রানের প্রয়োজন তখনও বল হাতে নিয়ে একের পর এক ইয়র্কার ডেলিভারি দিয়ে কুপোকাত করবেন তিনি।

এমনভাবেই নিজেকে ক্রিকেট বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছেন শ্রীলঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা। ১৯৮৯ সালের ৩ এপ্রিলে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোতে জন্মগ্রহণ করেন এই অলরাউন্ডার।

ভারতের বিপক্ষে বিখ্যাত কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে পেরেরার। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। শ্রীলঙ্কা দলে থিতু হয়েছেন তখন থেকেই। ২০১১ সালে বাংলাদেশ, ভারত এবং শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কা দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

২০১৪ সালে বাংলাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল শ্রীলঙ্কা। আর বিশ্বজয় করা দলের অপরিহার্য অংশ হিসেবেই ছিলেন এই অলরাউন্ডার। সেই বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ১৪ বলে তিন ছক্কায় ২৩ রান করে অপরাজিত ছিলেন পেরেরা। দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছিলেন।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পেরেরা এখন পর্যন্ত ১৫৩টি ম্যাচ খেলে প্রায় ২১ গড়ে করেছেন ২১৪৭ রান। তবে পেরেরা সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকেন তার রান তোলার গতিতে। ঝড়ো গতিতে রান তুলতেই তিনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। আর ১১২ স্ট্রাইক রেট সেদিকেই ইঙ্গিত দেয়। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এক ওভারে তুলেছিলেন ৩৫ রান। ওডিআইতে ৫.৮৬ ইকোনোমিতে এখন পর্যন্ত পেরেরার সংগ্রহ ১৬৯ উইকেট। ক্যারিয়ার সেরা বোলিং পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪৪ রানে ৬ উইকেট।

বিশ্বকাপে পেরেরা এখন পর্যন্ত খেলেছেন ১০টি ম্যাচ। আর এই ১০ ম্যাচে ব্যাট হাতে ১০৬ রানের পাশাপাশি ১৩টি উইকেটও সংগ্রহ করেছেন ৩০ বছর বয়সী এই লঙ্কান।

এবারের বিশ্বকাপে লঙ্কানদের ভরসার প্রতীক হয়েই লড়বেন পেরেরা। যেকোনো ম্যাচের মোড় পরিবর্তন করে দিতে পারদর্শী এই অলরাউন্ডারের দিকে নজর থাকবে ক্রিকেট বিশ্বের।

সারাবাংলা/এসএস/এমআরপি

** বিশ্বকাপে ব্যাট-বলে সমান তালে লড়বে যারা (সাকিব)

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন