মঙ্গলবার ২৫ জুন, ২০১৯ ইং , ১১ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ট্রাম্পকে বাণিজ্য যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জুতা ব্যবসায়ীদের

মে ২২, ২০১৯ | ১২:১৬ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চীনের সঙ্গে বাণিজ্য যুদ্ধ বন্ধ করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় জুতা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। এদের মধ্যে নাইকি ও অ্যাডিডাসও রয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর দাবি, দুই পক্ষের বাণিজ্যযুদ্ধে ভোক্তাদের ওপর বিপর্যয়কারী প্রভাব পড়ছে। খবর বিবিসির।

সম্প্রতি ট্রাম্পের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে বিশ্বের ১৭৩টি জুতা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান। ওই চিঠিতে তারা বলেছে, চীনা পণ্যের ওপর ট্রাম্পের আরোপ করা ২৫ শতাংশ শুল্কের প্রভাব ব্যাপক হারে প্রভাব ফেলবে শ্রমিকশ্রেণির ওপর।

তারা আরও বলেছে, এত উচ্চ শুল্কহারে ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের শুরুর দিকে ২০ হাজার কোটি ডলার সমমূল্যের চীনা পণ্যে শুল্কহার ১০ শতাংশ থেকে ২৫ শতাংশে উন্নীত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দুই দেশ একটি বাণিজ্য চুক্তিতে সম্মত হতে না পারায় এই শুল্ক আরোপ করেন ট্রাম্প। পাল্টা জবাবে চীনও ৬ হাজার কোটি ডলার সমমূল্যের মার্কিন পণ্যে ১ জুন থেকে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

চিঠিতে স্বাক্ষরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে, নাইকি, অ্যাডিডাস, ক্লার্কস, ড. মার্টেন্স ও কনভার্স। চিঠিতে বলা হয়, গড়পড়তায় যুক্তরাষ্ট্রে আমদানিকৃত জুতার ওপর শুল্ক থাকে ১১.৩ শতাংশ। কোনো কোনো ক্ষেত্রে তা ৬৭.৫ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে। এর সঙ্গে আরও অতিরিক্ত ২৫ শতাংশ শুল্ক যোগ করলে শ্রমিকশ্রেণির আমেরিকানদের ১০০ শতাংশ শুল্ক পরিশোধ করে জুতা কিনতে হতে পারে।

শুল্ক আরোপের সময় ট্রাম্প বলেছিলেন, প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের কারখানা স্থানান্তর করে পণ্যগুলোর দাম কমিয়ে আনতে পারে।

তবে প্রতিষ্ঠানগুলো জানিয়েছে, তারা চাইলেই চীন থেকে তাদের প্রতিষ্ঠান সরাতে পারছে না। জুতা তৈরি একটি উচ্চ পর্যায়ের পুঁজি-ভিত্তিক শিল্প। এর জন্য দরকার হয় বেশ কয়েক বছরের পরিকল্পনা, সিদ্ধান্তগ্রহণ। কিন্তু ধীরে ধীরে তারা চীন থেকে সরে আসছে।

মঙ্গলবার (২১ মে) চীনের এক শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন জানিয়েছে, তাদের সদস্যদের মধ্যে অন্তত ৪০ শতাংশ চীন থেকে অন্যত্র সরে গেছে বা সরে যাওয়ার চিন্তা করছে।

সারাবাংলা/আরএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন