বুধবার ১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ১ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

বিমানের পাইলট-ক্রুদের সাহসিকতা সবাইকে অনুপ্রাণিত করবে

মে ২৬, ২০১৯ | ৬:২৩ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করায় সম্মাননা পেলেন বিমানের পাইলট ও ক্রুরা। রোববার (২৬ মে) বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকায় রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এই এয়ারলাইন্সের পক্ষ থেকে তাদের হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুবাইগামী ফ্লাইট বিজি-১৪৭ এয়ারক্রাফটটি ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে। সে সময় সাহসী, দায়িত্বশীল এবং বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় এবং বিমানের প্রধান কার্যালয়ে ডাটা সেন্টারে অগ্নি নির্বাপনে ভূমিকা রাখায় দু’জন আইটি কর্মীকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

সম্মাননা পেয়েছেন ক্যাপ্টেন মো. গোলাম শাফি, ফার্স্ট অফিসার মুনতাসির মাহবুব, পার্সার শাফিকা নাসিম নিম্মি, জুনিয়র পার্সার হোসনেয়ারা, ফ্লাইট স্টুয়ার্ডেস শরিফা বেগম রুমা, ফ্লাইট স্টুয়ার্ড সাহেদুজ্জামান সাগর, ফ্লাইট স্টুয়ার্ড মো. আব্দুস সাকুর মোজাহিদ, অ্যাসিসটেন্ট সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রাক্টর তপু বডুয়া এবং সিনিয়র ডাটা প্রসেসিং অ্যাসিটেন্ট জহিরুল আলম চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। আরও উপস্থিত ছিলেন, বিমানের পরিচালক প্রশাসন জিয়াউদ্দীন আহমেদ, পরিচালক প্রকিউরমেন্ট অ্যান্ড লজিস্টিক সার্পোট মো. মমিনুল ইসলাম, পরিচালক পরিকল্পনা, বিক্রয় ও বিপণন কমোডর মাহবুব জাহান খাঁন, পরিচালক গ্রাহক সেবা আতিক সোবহান এবং চিফ ফিন্যানশিয়াল অফিসার বিনিত সুদ, মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজসহ অন্যানরা।

বিজি-১৪৭ ফ্লাইটের ক্রুদের সাহসিকতার প্রশংসা করেন ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল। সেই সঙ্গে তাদের এই দক্ষতা ও সাহসিকতা ধরে রাখার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ক্রুদের এই ত্যাগ ও দক্ষতা বিমানের সবাইকে অনুপ্রাণিত করবে।

সারাবাংলা/জেএ/এটি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন