বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০১৯ ইং , ৬ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ওসাকায় বাংলাদেশের তিন শিল্পীর প্রদর্শনী

জুন ২, ২০১৯ | ১২:১৩ অপরাহ্ণ

সাহিত্য ডেস্ক

আগামী ১০ জুন ২০১৯ জাপানের ওসাকায় শুরু হচ্ছে ‘AKA DOT’ শিরোনামে তিন শিল্পীর চিত্র প্রদর্শনী। এই প্রদর্শনীর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে তিন শিল্পীই বাংলাদেশী। দেশের তিন বিশিষ্ট শিল্পী জামাল আহমেদ, মোহাম্মদ ইকবাল এবং মুস্তাফা খালিদ পলাশ এর সাম্প্রতিক সময়ে আঁকা বেশ কিছু ছবি নিয়ে প্রদর্শনীটি হবে‌। প্রদর্শনীর আয়োজক ওসাকা কেন্দ্রিক জাপানি কোম্পানি হলবেইন। ওসাকার হলবেইন গ্যালারিতেই হবে এই প্রদর্শনী।

এই তিনজন শিল্পীর কাজের ধারায় ভিন্নতা থাকলেও শিল্পভাবনায় তাদের একটি অন্তর্নিহিত সুরের মিল রয়েছে যা বৈশিষ্ট্যে খুবই সমকালীন এবং নিজস্বতায় মূর্ত। প্রদর্শিতব‍্য চিত্রকলার এই তিনজন শিল্পীর অতীতে জাপানের প্রশিক্ষণ রয়েছে, প্রথম দুজনের চারুকলায় এবং শেষের জনের স্থাপত্যে। তাদের কাজ জাপানিজ মিনিমালিস্ট দর্শন এবং বাংলাদেশী সরলতা ভাব দ্বারা ভীষণ প্রভাবিত যা এখানে স্পষ্টভাবে পরিস্ফুট।

জামাল আহমেদ নিরলসভাবে নিবেদিত থেকে তার চিত্রকলার নিজস্ব ভাষা নির্মাণে কাজ করে গেছেন বছরের পর বছর যা সত্যিই বিশেষভাবে প্রণিধানযোগ্য। তার ক্যানভাসে একই বিষয় ঘুরে ফিরে এলেও একেকটি চিত্রকলায় তা আসে এক ভিন্নমাত্রা ও ভাব নিয়ে। তিনি দৃশ্যকল্প সৃষ্টির একজন সুনিপুণ কারিগর হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করেছেন যা সাধারণ দর্শক থেকে শিল্পবোদ্ধা পর্যন্ত সবার উপরে প্রভাব ফেলেছে তাঁর গভীর মননশীলতা দিয়ে।

মোহাম্মদ ইকবাল এই সময়ের ভীষণ সমাদৃত শিল্পী। এই প্রাজ্ঞ শিল্পীর চিত্রকলার বিষয়বস্তু হলো মানুষের মুখ এবং তার বিরাটকায় চোখ বিশেষ করে শিশুদের যা প্রকাশ করে সেই মানুষের আত্মার স্বরূপ, যেটা একটা মানুষের পরিণত বয়সে প্রবাহিত হয়ে পরিস্ফুট হয়। ইকবালের চিত্রকলার বিশেষত্ব হলো অনেকগুলি ষদচ্ছ স্তরের সন্নিবেশ যা পরিশেষে তাঁর গভীর ভাবনার মর্মার্থ উম্মোচনে সাহায্য করে।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের স্থাপত্য অঙ্গনে ক্রমবর্ধমান একচ্ছত্র একটি নাম মুস্তাফা খালিদ পলাশ। যিনি স্থাপত্য পেশার পাশাপাশি চিত্রশিল্পী, লেখক, সংগীত শিল্পী এবং একজন সচেতন সমাজকর্মী হিসেবেও পরিচিত। পলাশ একজন প্রকৃতি প্রদত্ত শিল্পী যিনি শৈশব থেকেই লালিত হয়েছেন তার শিল্পী পিতামাতার সযতন সান্নিধ্যে। ইতোমধ্যে তিনি চিত্রকলায় একটা নিজস্ব ধারা তৈরি করতে পেরেছেন যেখানে ক্যানভাসে তাঁর তুলির প্রশস্ত এবংশক্তিশালী টান রংয়ের স্পন্দন এবং আকার বিন্যাসের মিলিত ব্যঞ্জনা তৈরি করে এক গভীর অনিন্দ্য অনুভূতি।

মোহাম্মদ ইকবালের তত্ত্বাবধানে প্রদর্শনীটি উদ্বোধন করবেন হলবেইন কোম্পানির প্রেসিডেন্ট ইউসিও কাওয়ামী এবং এই প্রদর্শনীটি চলবে আগামী ১৫ জুন ২০১৯ পর্যন্ত।

সারাবাংলা/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন