বৃহস্পতিবার ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ২ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ সফর, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

পরিমিত খাবারে হোক গরমের ঈদ উদযাপন

জুন ৩, ২০১৯ | ৪:৫৯ অপরাহ্ণ

ঈদ মানেই মজাদার রান্না। পোলাও, কোরমা, ভুনা মাংস, ফিরনি, সেমাই আরও কত কী। এবার ঈদ পড়েছে একদম গরমে। তাই ঈদের দিন খুব বেশি তেল-মসলাযুক্ত খাবারের অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন অনেকেই।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু মজাদার রান্না ছাড়া তো আর উৎসব জমে না। তাই ঈদের দিন চেষ্টা করুন ব্যালান্সড খাবার খেতে। পোলাও-মাংসের সঙ্গে ভাজা বা ভুনা মাছের পরিবর্তে থাকুক মাছের সালাদ। আর মধু মাসে ফল শুধু শুধু না খেয়ে, ডেজার্ট হিসেবেই খেতে পারেন মজাদার ফ্রুট কাস্টার্ড।

ঈদ উপলক্ষে সারাবাংলার পাঠকদের জন্য রন্ধনশিল্পী নাজরানা লোপা দিয়েছেন এমনই পাঁচটি মজাদার খাবারের রেসিপি।

 

বিজ্ঞাপন

জাফরানি পোলাও

উপকরণ

  1. বাসমতি চাল – ২ কাপ
  2. ঘি – ১/২ কাপ
  3. বড় এলাচ – ২ টি
  4. তেজপাতা – ২ টি
  5. দারুচিনি – ২ টুকরো
  6. ছোট এলাচ – ২ টি
  7. পেঁয়াজ কুচি – ১ টা পেঁয়াজ
  8. কাজু বাদাম – ১ টেবিল চামচ
  9. কিশমিশ – ১ টেবিল চামচ
  10. জাফরান – ১/২ চা চামচ
  11. কেওড়া জল – ১ টেবিল চামচ
  12. আদা-রসুন বাটা – ১ টেবিল চামচ
  13. ঘন দুধ – ১/২ কাপ
  14. কাঁচা মরিচ – ৬/৭ টি
  15. চিনি – ১ চা চামচ
  16. লবণ – প্রয়োজনমতো
  17. গরম পানি – ৩ কাপ

পদ্ধতি

চাল ভালো করে ধুয়ে ভিজিয়ে রাখুন। আধা ঘন্টা পর পানি ঝরান। কেওড়া জলে জাফরান ভেজান।

হাড়িতে তেল আর ঘি একসাথে দিয়ে কাজু বাদাম আর কিশমিশ ভেজে তুলে রাখুন।

একই তেলে গরম মসলা, পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা সোনালি করে ভেজে নিন। এবার চাল দিয়ে কিছুটা নেড়ে আদা-রসুন বাটা, লবণ, চিনি, ও কাঁচা মরিচ দিন। চাল হালকা ভেজে তাতে গরম পানি আর দুধ দিন। মৃদু আঁচে রান্না করুন। পানি শুকিয়ে গেলে কেওড়া জলে জাফরান ভেজানো পানি দিন। কিছুক্ষন দমে রাখুন।

আস্তে করে উল্টে-পাল্টে দিন যাতে ভাত না ভাঙে। নামিয়ে ভেজে রাখা কাজু বাদাম আর কিসমিস দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

কষা মাংস

উপকরণ

  1. গরুর মাংস – ২ কেজি
  2. পেঁয়াজ কুচি – ১ কাপ
  3. আদা বাটা – ২ চা চামচ
  4. রসুন বাটা – ২ চা চামচ
  5. পেঁপে বাটা – ১/২ কাপ
  6. হলুদ গুঁড়া – ১ চা চামচ
  7. মরিচ গুঁড়া - ২ চা চামচ
  8. জিরা গুঁড়া - ১ চা চামচ
  9. ধনে গুঁড়া – ১ চা চামচ
  10. টক দই – ১/২ কাপ
  11. তেজপাতা – ২ টি
  12. এলাচ – ২/৩ টি
  13. দারুচিনি – ২/৩ টুকরো
  14. সর্ষের তেল – ১ কাপ
  15. গরম মসলা গুঁড়া – ১ চা চামচ
  16. লবণ – পরিমাণমতো

পদ্ধতি

গরুর মাংস ভালো করে ধুয়ে সব বাটা মসলা, গুঁড়ো মসলা, লবণ, পেঁপে বাটা, টক দই মেখে আধা ঘণ্টা মেরিনেট করুন।

প্যানে তেল গরম করে আস্ত গরম মসলা, তেজপাতা ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজতে হবে।

পেঁয়াজ বাদামি হলে তাতে মাংস দিয়ে কষাতে হবে। পরিমাণমতো পানি দিয়ে সিদ্ধ হতে দিন।

মাংস সেদ্ধ হয়ে তেল উপরে উঠে আসলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

মুরগির রোস্ট

উপকরণ

  1. মুরগির মাংস – ৮ টুকরো
  2. এলাচ – ২/৩ টি
  3. দারুচিনি – ২/৩ টুকরো
  4. টকদই – ১/২ কাপ
  5. আদা বাটা – ১ টেবিল চামচ
  6. রসুন বাটা – ১/২ টেবিল চামচ
  7. পেঁয়াজ বাটা – ২ টেবিল চামচ
  8. জায়ফল-জয়ত্রি বাটা – ১/২ চা চামচ
  9. মরিচ গুঁড়ো – ১/২ চা চামচ
  10. পেঁয়াজকুচি – ১ টি
  11. গুঁড়া দুধ – ১/২ কাপ
  12. ঘি – ২ টেবিল চামচ
  13. বেরেস্তা – ১/২ কাপ
  14. কাঁচা মরিচ – ১০ টি
  15. চিনি – ১ টেবিল চামচ
  16. তেল – ১ কাপ বা প্রয়োজনমতো
  17. কিশমিশ – ১ টেবিল চামচ
  18. পোস্তদানা বাটা – ১ চা চামচ
  19. কেওড়া জল – ১ টেবিল চামচ
  20. জাফরান – সামান্য
  21. জিরা বাটা – ১ চা চামচ

পদ্ধতি

মুরগির টুকরোগুলো সামান্য আদা- রসুনবাটা আর লবণ দিয়ে মেখে রাখুন আধা ঘণ্টা।

এবার প্যানে তেল গরম করে মুরগির মাংসগুলো লাল করে ভেজে তুলুন।

এবার অন্য একটি প্যানে তেল আর ঘি দিয়ে গরম মসলা আর পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভাজুন। বাদামি রঙ হলে সামান্য পানি দিয়ে আদা-রসুন বাটা, পেঁয়াজবাটা, জয়ফল-জয়ত্রি বাটা, জিরা গুঁড়া আর মরিচ গুঁড়া দিয়ে কষিয়ে টক দই দিন।

এরপর মুরগির মাংস দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন।

কষানো হয়ে গেলে সামান্য পানি দিয়ে মুরগি সেদ্ধ করে নিন।

মুরগি সেদ্ধ হয়ে গেলে বাকি উপকরণ দিন।

সব শেষ দুধ ও বেরেস্তা দিয়ে কেওড়া জল দিয়ে কিছুক্ষণ দমে রেখে দিন। তেল উপরে উঠে আসলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

প্রন সালাদ

উপকরণ

  1. খোসা ছাড়ানো চিংড়ি – ১ কাপ
  2. আদা-রসুন বাটা – ১/২ চা চামচ
  3. সয়া সস – ১ চা চামচ
  4. গোলমরিচ গুঁড়ো – ১/২ চা চামচ
  5. লবণ – প্রয়োজনমতো
  6. শসা কুচি – ১/২ কাপ
  7. টমেটো কুচি – ১/২ কাপ
  8. পেঁয়াজ কুচি – অর্ধেকটা পেঁয়াজ
  9. কাঁচা মরিচ – ২ টি
  10. ধনে পাতা কুচি – ১ টেবিল চামচ
  11. টমেটো সস – ২ টেবিল চামচ
  12. হট চিলি সস – ২ টেবিল চামচ
  13. চিনি – ১/২ চা চামচ
  14. কাজু বাদাম – ১/৪ কাপ
  15. লেবুর রস – ১ চা চামচ
  16. অলিভ অয়েল – প্রয়োজনমতো
  17. কর্ন ফ্লাওয়ার – ১ টেবিল চামচ

পদ্ধতি

চিংড়ি মাছ, আদা-রসুন বাটা, সয়াসস, গোল মরিচ দিয়ে আধা ঘন্টা মেরিনেট করুন। আধা ঘন্টা কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে চিংড়িগুলো তেলে ভেঁজে রাখুন। এবার সবগুলো উপকরণ দিয়ে একসাথে ভালো করে মেখে পরিবেশন করুন।

ফ্রুট কাস্টার্ড

উপকরণ

  1. দুধ – দেড় লিটার
  2. ডিম – ১ টা
  3. কাস্টার্ড পাউডার – ৩ টেবিল চামচ
  4. চিনি – ১/২ কাপ বা প্রয়োজনমতো
  5. লেবুর রস – ১ টেবিল চামচ
  6. ফল – কলা, আম, আপেল, আঙুর বা পছন্দমতো ফল ছোট ছোট কিউব করে কাটা

পদ্ধতি

চিনি মিশিয়ে দুধ জ্বাল দিন। দুধ এক লিটারের মতো হয়ে আসলে ডিম ভালো করে ফেটে নিন।

সামান্য পানি দিয়ে কাস্টার্ড পাউডার গুলে দুধে মিশিয়ে মৃদু আঁচে ভালো করে নাড়তে থাকুন।

কাস্টার্ড ঘন হয়ে আসলে নামিয়ে ঠান্ডা করে ফ্রিজে রাখুন।

ফল কেটে লেবুর রস মেখে রাখুন।

খাবার সময় ফল দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

ছবি- আবদুল্লাহ আল মামুন এরিন

সারাবাংলা/আরএফ/

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন