বিজ্ঞাপন

‘শুরু থেকে আক্রমণ করে চাপে ফেলতে চেয়েছিলাম’

January 31, 2018 | 8:12 pm

বিশেষ প্রতিনিধি, চট্টগ্রান থেকে

বিজ্ঞাপন

একটা রেকর্ড হয়ে গেছে, আরেকটাও হতে পারত। টেস্টের প্রথম দিনে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ড আজ চট্টগ্রাম টেস্টে নতুন করে লিখিয়েছে বাংলাদেশ। তৃতীয় সেশনে আরেকটু দ্রুত হলে টেস্টে প্রথমবারের মতো এক দিনে ৪০০ রানও হয়ে যেতে পারত। তামিম ইকবাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়ে গেলেন, শুরু থেকেই আক্রমণ করে শ্রীলঙ্কাকে চাপে ফেলে দেওয়াই ছিল তাদের পরিকল্পনা।

সকালের প্রথম ঘণ্টাখানেকের পর আজ উইকেট থেকে তেমন সাহায্যই পাননি বোলাররা। শুরুটা তামিমই করেছিলেন, পরে মুমিনুল সেটা একদম অক্ষরে অক্ষরে করে দেখিয়েছেন। তামিম বললেন, শুরু থেকেই আক্রমণ করে চাপে ফেলে দেওয়াই ছিল তাদের উদ্দেশ্য, ‘আমি যে পরিকল্পনায় খেলছিলাম, আমার মনে হয়েছিল ইতিবাচক শুরু করলে ওরা চাপে পড়ে যাবে। এটাই হয়েছে। যে পরিকল্পনা আমি করেছি, সেটা কাজে লেগেছে। ওদের প্রধান বোলার যারা আছে, তাদের আক্রমণ করতে চেয়েছিলাম। আমি সফলভাবেই তা করেছি।’

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কার বোলারদের শুরু আর শেষের কিছু সময় বাদ দিলে বাকি সময় মনে হয়েছে দিশেহারাই। সেটাও তামিমের নজর এড়ায়নি, ‘ওরা এমন এক পরিস্থিতিতে পড়েছে, যেখানে ওদের আমরা পড়ে যেতে দেখতে চেয়েছিলাম। সত্যি কথা বলতে, একটা পর্যায়ে তারা বুঝতে পারছিল না কোথায় বল করবে।’

কিন্তু এমন একটা দিনের পরও থেকে যায় অতৃপ্তি। দিনের শেষে ওই দুই উইকেট না গেলে স্বপ্নের একটা দিন হতে পারত। সেই কাটা খচখচ করছে তামিমের মনেও, ‘দ্বিতীয় উইকেটে আমরা যেভাবে পারফর্ম করেছি, আমার কাছে মনে হয় ওইভাবে শেষ করতে পারলে এটা ‘কমপ্লিট পারফর্ম্যান্স’ হতে পারতো। সত্যি কথা এটা নিয়ে চিন্তিত ছিলাম, যাতে কোনো ধস না নামে। সধারণত কোনো বড় জুটি হলে আমাদের ক্ষেত্রে এমন (ধস) হয়। একটু বেশি হয়। আমরা আমাদের পক্ষ থেকে ব্যাটসম্যানদের এ বিষয়ে বার্তা দিচ্ছিলাম। কিন্তু দুঃখজনকভাবে মুশফিক আউট হওয়ার পর লিটন আউট হয়ে গেলো। তারপরও আমরা মনে করি- এটা একটা দারুণ দিন ছিল।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএম/এমআরপি

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন