রবিবার ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ১০ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ জিলহজ, ১৪৪০ হিজরি

বিজ্ঞাপন

ইস্তাম্বুলে বাংলাদেশ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের ঈদ পুনর্মিলনী

জুন ৯, ২০১৯ | ৭:০৫ অপরাহ্ণ

ওমর ফারুক হেলালী, তুরস্ক থেকে

তুরস্কের ঐতিহাসিক শহর ইস্তাম্বুলে বাংলাদেশি কমিউনিটির মাঝে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে বাংলাদেশ স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন আয়োজন করে ঈদ পুনর্মিলনীর উৎসবের।

মঙ্গলবার (৪ মে) ঈদুল ফিতরে দিনে ইস্তাম্বুলের শহর থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে নান্দনিক পর্যটনকেন্দ্র পোলোনেজকয়তে দিনব্যাপী বর্ণিল এ পুনর্মিলনীর আয়োজনে যোগ দেয় শিক্ষার্থীসহ শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি।

সকালে ব্লু মস্ক খ্যাত বিশ্বসেরা সুলতান আহমেদ মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় শেষে পারস্পারিক কুশল বিনিময়ের পর ঈদের নাস্তা খেয়ে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানস্থলের দিকে রওনা হন অংশগ্রহণকারী।

দুটি বড় বাসে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক আয়োজনে পুরো পথ জুড়ে এক উৎসবের স্মৃতি গড়ে তোলে। বসফরাস প্রণালী, পাহাড় ও গ্রামের আঁকাবাঁকা পথে সবুজ শ্যামল দৃশ্য এ যাত্রা আরো শৈল্পিক রূপ ধারণ করে।

বিজ্ঞাপন

দুপুরের আগেই গাড়ি পৌঁছে পার্কে। গাড়ি থেকে নামতে না নামতে খেলাপ্রেমীরা মাঠের দিকে ছুটে পড়ে। একদিকে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের উত্তাপ অন্যদিকে দূর প্রবাসে খেলার আমেজ এ যেন একসূত্রে গেঁথে গেল। চারটি দলে বিভক্ত হয়ে খেলা আরম্ভ হয়। ইতোমধ্যে মারমারা বিশ্ববিদ্যালয় আলতেনবাশ বিশ্ববিদ্যালয়কে ও সাবাহউদ্দিন জাইম বিশ্ববিদ্যালয় ইবনে খালদুন বিশ্ববিদ্যালয়কে হারিয়ে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে পরস্পর মুখোমুখি হয়। খেলায় জাইম বিশ্ববিদ্যালয় মারমারা বিশ্ববিদ্যালয়কে হারিয়ে বিজয় লাভ করে।

অন্যদিকে অভিজ্ঞ দেশীয় পদ্ধতিতে রকমারি খাবারের আয়োজন চলতে থাকে। মাঙ্গাল (বারবিকিউ) আয়োজনের সময় ঘ্রাণে ক্ষুধার মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে। অতঃপর খেলার পরে সবাই দুপুরের খাবার গ্রহণ করে।

বিকেল গড়ানোর খানিক পূর্বেই অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সদস্য, মিমার সিনান বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি অধ্যয়নরত আ.ব.ম নুরুল আবছারের সঞ্চালনায় বর্ণিল উৎসবের বাকি আয়োজন শুরু হয়।

এ পর্বে ছিল হাঁড়ি ভাঙা খেলা, মহিলাদের বালিশ খেলা, বাচ্চাদের বেলুন খেলা, বিবাহিত ও অবিবাহিতদের জনপ্রিয় দড়ি টানাটানি খেলা। দড়ি খেলায় অবিবাহিত দল জয়লাভ করে। পাশাপাশি উপস্থিত অভিনয় প্রতিযোগিতা হয়। এছাড়াও চলে ঈদ স্মৃতিচারণ।

সন্ধ্যা গড়ানোর আগে পুরস্কার বিতরণ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। বর্ণিল এ আয়োজনে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুমিন এবং সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক হেলালী।

রাতে বাংলাদেশ কনস্যুলেট ইস্তাম্বুল কর্তৃক আয়োজিত ঈদ উদযাপন অনুষ্ঠানে সবাই একযোগে অংশগ্রহণ করে। অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল ড. মনিরুল ইসলাম সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান শেষে সবাই রাত্রীকালীন ভোজ গ্রহণ করে।

সারাবাংলা/এমএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন