বুধবার ২৬ জুন, ২০১৯ ইং , ১২ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

জিপিএ-৫ পাওয়া সাড়ে চার হাজার শিক্ষার্থী কোনো কলেজ পায়নি

জুন ১০, ২০১৯ | ৮:৫১ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার জিপিএ-৫ পাওয়া সাড়ে চার হাজার শিক্ষার্থী একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়ার জন্য প্রকাশিত প্রথম মেধা তালিকায় কোনো কলেজ বরাদ্দ পায়নি। সোমবার (১০ জুন) সারাবাংলাকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক।

জিয়াউল হক বলেন, ‘কলেজ বরাদ্দ দেওয়ার প্রথম তালিকায় সারা বাংলাদেশ থেকে ৪ হাজার ৫৭২ জন জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর নাম আসেনি। শুধু মাত্র ঢাকা শিক্ষা বোর্ডেই ১ হাজার ৮৪৩ জন শিক্ষার্থী কোনো কলেজ বরাদ্দ পায়নি। ভর্তি হওয়ার জন্য কাঙ্ক্ষিত যে কলেজ এরা পছন্দ করেছিল, সেখানে পর্যাপ্ত আসন না থাকার কারণেই তাদের নাম আসেনি। দ্বিতীয় ধাপে এদের আবার আবেদন করতে হবে।’

গতকাল রোববার রাত দশটায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য প্রথম ধাপের ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তিচ্ছু ১৪ লাখ আবেদনকারী থেকে ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৬ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার জন্য কলেজ বরাদ্দ পেয়েছেন। এর মধ্যে ৯৭ হাজার ১০ জন শিক্ষার্থী প্রথম ধাপে কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাননি।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক হারুন অর রশীদ বলেন, ‘এটি নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই, দ্বিতীয় ধাপের এরা ভর্তি হতে পারবেন। পছন্দের কলেজে আসন খালি থাকলে ভর্তি হবেন। না হলে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে অন্যান্য কলেজে ভর্তি হতে পারবেন।

প্রথম দফায় মনোনীতদের ১১ থেকে ১৮ জুনের মধ্যে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে টেলিটক বা মোবাইল ব্যাংকিং রকেট ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন ফি ১৯৫ টাকা পরিশোধ করতে হবে। এ প্রক্রিয়ায় ভর্তি নিশ্চিত করতে না পারলে মনোনয়ন বাতিল হবে। সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীর আবেদনটিও বাতিল হয়ে যাবে।

একাদশে ভর্তির ফল প্রকাশ

এবার ৯টি শিক্ষা বোর্ড ও একটি মাদরাসা বোর্ডের অধীনে থাকা কলেজগুলোতে ভর্তির জন্য প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন করেছে। এদের মধ্যে অনলাইনে আবেদন করেন ১০ লাখ ৩৯ হাজারের বেশি এবং এসএমএসের মাধ্যমে তিন লাখ ৬৫ হাজার শিক্ষার্থী।

আগামী ১৯ ও ২০ জুন দ্বিতীয় ধাপের আবেদন গ্রহণ করা হবে। আগামী ২১ জুন রাত ৮টার পর দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচিতদের ফল প্রকাশ করা হবে। ২২ ও ২৩ জুন তাদের সিলেকশন নিশ্চিত করতে হবে।

এরপর ২৪ জুন রাত ৮টার পর থেকে তৃতীয় ধাপের আবেদন গ্রহণ করা হবে। ২৫ জুন রাত ৮টার পর তৃতীয় ধাপের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে। ২৭ থেকে ৩০ জুন ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ১ জুলাই থেকে শুরু হবে নতুন শিক্ষাবর্ষের ক্লাস।

সারাবাংলা/টিএস/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন