বুধবার ২৬ জুন, ২০১৯ ইং , ১২ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

আসিফ আলী জারদারি ১১ দিনের রিমান্ডে

জুন ১১, ২০১৯ | ৬:৩৭ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক

ঢাকা: মানি লন্ডারিং মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও পিপিপি’র কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারিকে ১১ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার বিচারক আরশাদ মালিক এই আদেষ দেন। এদিন ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর পক্ষ থেকে ১৪ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক ১১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আগামী ২১ জুন পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করে ওই দিন জারদারিকে ফের আদালতে হাজির করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

ডনের খবরে বলা হয়, জারদারিকে আদালতে আনা উপলক্ষে রাওয়ালপিণ্ডিতে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর অফিসের সামনে ৩০০ এবং আদালত প্রাঙ্গণে ৫০০ পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়। তাছাড়া স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের সদস্যদের বিভিন্ন সড়কে টহল দেন।

প্রসঙ্গত, অর্থপাচার ও ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ব্যবহারের মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারিকে সোমবার (১০ জুন) গ্রেফতার করা হয়। ইসলামাবাদে হাইকোর্ট তার আগাম জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন নাকচ করলে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরোর সদস্যরা জারদারিকে গ্রেফতার করে।

আসিফ আলী জারদারি ও তার বোনের বিরুদ্ধে ভুয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে শত শত কোটি রূপি পাচারের অভিযোগ রয়েছে। এ মামলায় জারদারি ও তার বোন সোমবার (১০ জুন) আগাম জামিন আবেদন করেন। দেশটির হাইকোর্ট দুইজনেরই জামিন আবেদন নাকচ করেন।

হাইকোর্টের এ সিদ্ধান্তের কয়েকঘণ্টা পর জারদারি গ্রেফতার হন।

আসিফ জারদারি পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) কো-চেয়ারম্যান। তিনি ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। আসিফ আলী জারদারি পাকিস্তানের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর স্বামী।

পাকিস্তানের রাজনীতিতে আসিফ আলী জারদারি একজন বিতর্কিত ব্যক্তি। তিনি দুর্নীতির দায়ে এর আগে ১৯৯০ থেকে ২০০০ পর্যন্ত কারাগারে ছিলেন। তাকে ‘মিস্টার টেন পারসেন্ট’ বলেও ডাকা হয়। প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি রুপি অবৈধ লেনদেনের মামলায় সাবেক প্রেসিডেন্ট জারদারির বিদেশ সফরেও নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন হাইকোর্ট।

সারাবাংলা/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন