সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ১ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

মঞ্জুর মোরশেদ ডিআইজি মিজানের নতুন অনুসন্ধান কর্মকর্তা

জুন ১২, ২০১৯ | ৪:৪৫ অপরাহ্ণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমানের অবৈধ সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের পরিচালক মঞ্জুর মোরশেদকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১২ জুন) দুদকের উপপরিচালক (অনুসন্ধান ও তদন্ত-১) ঋত্বিক সাহা স্বাক্ষরিত এক বার্তায় এই তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই বার্তায় আরও বলা হয়েছে, ডিআইজি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগটি অনুসন্ধানের জন্য খন্দকার এনামুল বাছিরের পরিবর্তে দুদকের পরিচালক মঞ্জুর মোরশেদকে নিয়োগ দেওয়া হলো।

উল্লেখ্য, সম্প্রতিকালে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে দুদকের পরিচালক ও ডিআইজি মিজানের অনুসন্ধান কর্মকর্তা খন্দকার এনামুল বাছিরকে বরখাস্ত করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আর ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে বিতর্কিত ডিআইজি মিজানুর রহমান একটি অডিও ফাঁস করেছেন। এরপরই দুদক তিন সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের একটি কমিটি গঠন করে। সেই কমিটির তদন্তের ভিত্তিতে কমিশন দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে দুদক।

তবে ঘুষ লেনদেনের বিষয়টি অস্বীকার করে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে দুদকের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। তিনি গতকাল সারাবাংলাকে বলেন, ‘পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে যে অডিও রেকর্ড ফাঁস হয়েছে সেটা আমার নয়। সে অপরাধী তাই নিজে বাঁচতে পরিকল্পিতভাবে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছে। অডিও রেকর্ডটি আমার নয় সেটা ফরেনসিক ল্যাবে টেস্ট করতে দিলেই জানা যাবে। আমি চ্যালেঞ্জ করছি তার কাছ থেকে কোনো ঘুষ নেয়নি, এমনকি ঘুষ নেওয়ার কোনো কথাও তার সঙ্গে হয়নি।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসজে/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন