বুধবার ২৬ জুন, ২০১৯ ইং , ১২ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ইমারত নির্মাণ আইন ও বিধিমালা কঠোরভাবে অনুসরণের তাগিদ

জুন ১২, ২০১৯ | ৫:২৬ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) ইমারত নির্মাণ কমিটি, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন এবং স্থপতি ইনস্টিটিউটকে চিঠি দিয়ে ‘ইমারত নির্মাণ বিধিমালা’ কঠোরভাবে অনুসরণের তাগিদ দেওয়া হয়েছে। প্রতিসপ্তাহে একবার সরেজমিনে পরিদর্শন করে ইমারত নির্মাণ বিধিমালা প্রতিপালন করা হচ্ছে কি-না তা-ও দেখার কথা বলা হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) সিডিএতে দায়িত্বরত স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল আলম চৌধুরী পৃথকভাবে তিনটি চিঠি দিয়েছেন।

সিডিএ’র ইমারত নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন এবং স্থপতি ইনস্টিটিউটের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের কাছে এই চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে সারাবাংলাকে জানিয়েছেন ওই আদালতে পেশকার মো. ফয়েজ। তিনি জানান, চিঠিতে বলা হয়েছে- ইমারত প্ল্যান ও নকশা অনুমোদন গ্রহণকারী সংস্থা অথবা কার্য সম্পাদনকারী ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান ইমারত নির্মাণ আইন, ১৯৫২ ও ইমারত নির্মাণ বিধিমালা, ২০০৮ সঠিকভাবে প্রতিপালন করছে কি-না তা কঠোরভাবে তদারকির নিমিত্তে সপ্তাহে একদিন সরেজমিন পরিদর্শন করতে হবে।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন এবং স্থপতি ইনস্টিটিউটের প্রত্যেক সদস্যকে এ সংক্রান্ত আইন ও বিধিমালা সতর্কতার সঙ্গে প্রতিপালনের জন্য চিঠিতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইমারত নির্মাণ বিধিমালা-২০০৮ অনুযায়ী ভবনের নকশা অনুমোদনের পাশাপাশি ভবনটি অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী নির্মিত হচ্ছে কিনা তা তদারকির জন্য সিডিএ’র নিবন্ধিত প্রকৌশলী ও স্থপতিদের দায়িত্ব রয়েছে। এমনকি ভবনটি নির্মাণ শেষ হওয়ার তা কোন কাজে ব্যবহার হবে সেজন্য একটি ব্যবহারগত সনদও সিডিএ থেকে নেয়ার বিধান রয়েছে।

তবে অভিযোগ আছে, ভবন মালিকরা তা না নিয়েই আবাসিকে বাণিজ্যিক, হাসপাতাল, কনভেনশন সেন্টার কিংবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলছে। এর ফলে দিন দিন নগরীতে বাড়ছে নকশা লঙ্ঘন করে গড়ে উঠা ভবনের সংখ্যা।

সারাবাংলা/আরডি/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন