বিজ্ঞাপন

৫০০ পেরিয়েও মাহমুদউল্লাহর আক্ষেপ

February 1, 2018 | 1:23 pm

চট্টগ্রাম থেকে প্রতিনিধি

বিজ্ঞাপন

হলো না। সুরঙ্গা লাকমলের শর্ট বলটাই ভেঙে দিল মোস্তাফিজুর রহমানের প্রতিরোধ। ৮৩ রানে অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়তে হলো মাহমুদউল্লাহকে। তবে বাংলাদেশ যে ৫০০ পার করেছে, সেজন্য মোস্তাফিজকে নিশ্চয় একটা ধন্যবাদ দেবেন!

৪৭৮ রানে নবম উইকেট হারানোর পর মনে হচ্ছিল, বাংলাদেশ বোধ হয় ৫০০ পেরুতে পারবে না। আগের দিন থিলান সামারাবীরা এসে বলে গিয়েছিলেন, বাংলাদেশকে ৫০০’র নিচে আটকে রাখাটাই তাদের লক্ষ্য। সেই কাজটা শ্রীলঙ্কা তখন করে ফেলবে বলেই মনে হচ্ছিল। কিন্তু মোস্তাফিজকে নিয়ে শেষ উইকেটে মাহমুদউল্লাহ যোগ করলেন মূল্যবান ৩৫ রান। সেঞ্চুরির বাতিঘরটাও কি দেখতে শুরু করেছিলেন?

বিজ্ঞাপন

মোস্তাফিজ যেভাবে সঙ্গ দিচ্ছিলেন, তাতে দেখতেই পারেন। দুজনে জুটি বাঁধার পর সান্দাকানের বলে চার-ছয় মেরে মাহমুদউল্লাহ পৌঁছে গেলেন সত্তরের ঘরে। দুই হাজার রানও হয়ে গেছে এর মধ্যেই, বাংলাদেশের হয়ে অধিনায়কের অভিষেকে প্রথম সেঞ্চুরির হাতছানি তখন আরও কাছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটা কাছে এসেও হয়ে রইল অনেক দূর।

বাংলাদেশের অবশ্য আজ সকালে আফসোস করার অনেক কিছুই ছিল। মুমিনুল হকের ডাবল সেঞ্চুরি দেখতে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের নিস্তরঙ্গ গ্যালারিও কিছুটা সরব হয়ে রইল। কিন্তু আগের দিনের সঙ্গে মাত্র ১ রান যোগ করেই আউট হয়ে গেলেন মুমিনুল। মোসাদ্দেক হোসেনও যখন ৮ রানে সেই হেরাথের বলেই উড়িয়ে মারতে গিয়ে উইকেটটা দিয়ে এলেন, বাংলাদেশের জন্য ৫০০ মনে হচ্ছিল অনেক দূর। ৩৯০ রানেই যে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে বাংলাদেশ!

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলায় দেখুন বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা টেস্ট ম্যাচ

বিজ্ঞাপন

এরপর মিরাজ শুরু করলেন পালটা আক্রমণ, মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে মিলে পার করলেন ৪০০। ১৯ বলে ২০ রান করে শুরু থেকেই ছিলেন দারুণ সপ্রতিভ। কিন্তু দুই রানকে তিন রান বানাতে গিয়েই হলো সর্বনাশ, ডাইভ দিয়েও রান আউট ঠেকাতে পারেননি মিরাজ। ৪১৭ রানে বাংলাদেশ হারায় সপ্তম উইকেট।

বাংলাদেশের আজকের দিনের সবচেয়ে সফল অধ্যায়ের শুরুটা তখনই। সানজামুল ইসলামের প্রথম শ্রেণিতে ১৭২ রানের ইনিংস আছে। আজ মাহমুদউল্লাহকে সঙ্গ দিতে গিয়েই বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন, সেটা এমনি এমনি পাননি। দুজন মিলে অষ্টম উইকেটে যোগ করলেন ৫৮ রান। দুজন যখন ৫০০র দিকে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন, তখনই সান্দাকানের বলটা ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে খেলতে গিয়ে স্টাম্পড হয়ে গেলেন সানজামুল। তাইজুলও খানিক পর ১ রান করেই হেরাথের বলে বোল্ড হয়ে গেলেন। উইকেটে যে টার্ন আর বাউন্স আছে, সেই ইঙ্গিতও পাওয়া গেল পরিষ্কার।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের জন্য সেটাই সবচেয়ে আশা জাগানিয়া হতে পারে!

সারাবাংলা/এএম/এমআরপি

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন