সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং , ৮ আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৩ মুহাররম, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

প্লাস্টিক ঘোষণা দিয়ে সিমেন্ট এনেছে প্রাণ, মামলা দায়ের

জুন ১২, ২০১৯ | ৬:০১ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানির অভিযোগে প্রাণ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান প্রাণ ডেইরি লিমিটেডের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করেছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। এতে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে শুল্ক ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১২ জুন) চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের সহকারী শুল্ক কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান সজিব বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

জালিয়াতি, প্রাণের ৩০ কনটেইনার জব্দ চট্টগ্রাম বন্দরে

চট্টগ্রাম কাস্টমসের যুগ্ম কমিশনার সাধন কুমার কুন্ডু সারাবাংলাকে বলেন, ‘শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে প্রাণ গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কাস্টমস আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। এটি তদন্তাধীন বিষয়। যদি তদন্তে মানি লন্ডারিং কিংবা এ সংক্রান্ত ফৌজদারি কোনো অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া যায়, তাহলে থানায় নিয়মিত মামলা হবে।’

প্লাস্টিক দানার ঘোষণা দিয়ে সৌদি আরবের একটি বিখ্যাত ব্র্যান্ডের সিমেন্ট আমদানি করে প্রাণ গ্রুপ প্রায় তিন কোটি টাকার শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করেছিল বলে জানিয়েছিলেন কাস্টমসের এই কর্মকর্তা।

বিজ্ঞাপন

এর আগে মঙ্গলবার (১১ জুন) চট্টগ্রাম বন্দরের একটি ইয়ার্ডে প্রাণ গ্রুপের আমদানি পণ্যবোঝাই ৩০টি কনটেইনারের কায়িক পরীক্ষা শেষে সেখানে ঘোষণা বর্হিভূত পণ্য পায় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। এরপর সেগুলোর খালাস স্থগিত রেখে জব্দের নির্দেশ দেওয়া হয়।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই থেকে প্রাণ ডেইরি লিমিটেডের নামে ৩০ কনটেইনারের এই চালানটি গত ২৬ মে চট্টগ্রাম বন্দরে আসে। ওইদিনই চালান খালাসের জন্য নথিপত্র জমা দেয় আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান।

চালানে পাঁচ লাখ ৬৬ হাজার ডলার মূল্যের ৫১০ মেট্টিক টন প্লাস্টিক দানা আনার ঘোষণা দেওয়া হয়। বাংলাদেশি টাকায় এর দাম প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা।

কাস্টমস কর্মকর্তাদের ভাষ্যমতে, ঈদে সরকারি বন্ধের সময় ৬ জুন রাতে তারা কনটেইনার খালাসের চেষ্টা করে। এসময় কাস্টমস কর্মকর্তারা দুটি কনটেইনার খুলে সিমেন্টের বস্তা দেখতে পান। তখন সেগুলোর খালাস বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

৩০টি কনটেইনারে করে সৌদি আরবের জেবেল আলী ব্র্যান্ডের ৫১০ মেট্রিক টন সিমেন্ট আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাস্টমসের কর্মকর্তারা।

সারাবাংলা/আরডি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন