বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০১৯ ইং , ৬ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচন জমেছে ভোটের লড়াই

জুন ১২, ২০১৯ | ৯:৩৫ অপরাহ্ণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

বগুড়া: আগামী ২৪ জুন অনুষ্ঠিত হবে বগুড়া-৬ আসনে সংসদীয় উপনির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে ক্রমশ জমে উঠছে বগুড়ায় ভোটের লড়াই। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন লন্ডন প্রবাসী তারেক রহমানের নির্দেশনায় দলের প্রার্থী জিএম সিরাজের হয়ে ভোটের মাঠে ঐক্যবদ্ধভাবেই কাজ করছে বগুড়া বিএনপির নেতাকর্মীরা। অপরদিকে, এই উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করছেন বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক টি জামান নিকেতা। তার পক্ষে মাঠে নেমেছে বগুড়া জেলা জাসদ (ইনু) ও ১৪ দল।

নির্বাচন প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে বগুড়া জেলা বিএনপির নেতা মাফতুন আহম্মেদ খান রুবেল বলেন, এখন পর্যন্ত বগুড়ায় ভোটের মাঠের যে শান্তিপূর্ণ অবস্থান দেখছি তাতে মনে হচ্ছে ভোটের দিন পর্যন্ত এই অবস্থা থাকলে রেকর্ড পরিমাণ ভোটে বিজয়ী হবে ধানের শীষ।

তিনি জানান, ২০ দলের প্রার্থী জিএম সিরাজ বগুড়ার ৫ সংসদীয় আসনে ৯১, ৯৬ ও ২০০১ সালের নির্বাচনে পরপর তিন বার এমপি ছিলেন। এমপি থাকাকালে সরকারি বরাদ্দের সঠিক ব্যবহার করেছেন। তাছাড়া, তিনি এখন দেশের একজন বড় শিল্পোদ্যোক্তাও বটে। তিনি সদরের এমপি নির্বাচিত হলে দলীয় ও জোটের নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ নাগরিকরাও উপকৃত হবেন।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী টি জামান নিকেতার নির্বাচন প্রস্তুতি নিয়ে জেলা জাসদ সভাপতি রেজাউল করিম তানসেন জানান, শুরুতে মহাজোটের প্রার্থিতা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকলেও এখন তা কেটে গেছে। জাসদ তথা ১৪ দল আনুষ্ঠানিক সভা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা বগুড়া সদরে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল নয় আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের পক্ষেই কাজ করবেন।

বিজ্ঞাপন

১৪ দল ও জাসদের এই সমর্থন আওয়ামী লীগের প্রার্থী টি জামান নিকেতার জন্য ইতিবাচক হবে বলে জানান বগুড়া শহর আওয়ামীলীগ নেতা শেখ শামীম।

এদিকে, বগুড়া জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও বগুড়া সদর আসনের সাবেক এমপি নুরুল ইসলাম ওমর এবার দলীয় প্রতীক লাঙ্গল নিয়ে ভোট করছেন। ধারণা করা হয়েছিল বগুড়া সদর আসনে এবারও অতীতের মতো তিনিই হবেন মহাজোটের একক প্রার্থী। তবে এবার এই আসনে মহাজোটের একক প্রার্থী না থাকলেও সদ্য সাবেক এমপি হওয়ায় তার আত্মবিশ্বাস রয়েছে।

বগুড়া-৬ সদর আসনে এবার ২০ দল, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ কংগ্রেস, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের ৫ প্রার্থী ছাড়াও দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থী ভোট করছেন। ভোটের প্রচারণায় বাংলাদেশ মুসলিম লীগের প্রার্থী রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মনসুর রহমান এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মিনহাজ মণ্ডলের কোনো তৎপরতা না থাকলেও বগুড়া মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কবীর আহম্মেদ মিঠু বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীদের নিয়ে ভোটের মাঠে জোট ও মহাজোটের প্রার্থীদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, উপনির্বাচনে বগুড়ার ১শ’৪১টি ভোট কেন্দ্রের ৯শ’৬৫টি বুথে ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হবে। বগুড়ার ১১টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ২০টি ওয়ার্ডকে নিয়ে গঠিত বগুড়া সদর নির্বাচনি এলাকায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪শ ৫৮ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৯৫ হাজার ৭শ’ ৯০ জন ও পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৯১ হাজার ৬শ ৪৮ জন।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন