বুধবার ২৬ জুন, ২০১৯ ইং , ১২ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানকে হারিয়ে জয়ে ফিরলো অস্ট্রেলিয়া

জুন ১২, ২০১৯ | ১১:০৩ অপরাহ্ণ

বিশ্বকাপ ডেস্ক

চলতি বিশ্বকাপের ১৭তম ম্যাচে মুখোমুখি হয় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া আর সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। পাকিস্তানকে ৪১ রানে হারিয়ে জয়ে ফিরেছে অজিরা। দু’দলের শেষ ছয় দেখার প্রত্যেকটি ম্যাচেই জয়ের স্বাদ পেল অস্ট্রেলিয়া। সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত ওয়ানডে সিরিজে ৫-০ ব্যবধানে ধবলধোলাইয়ের শিকার হয়েছিল পাকিস্তান।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তান দলপতি সরফরাজ আহমেদ। ৪৯ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া তোলে ৩০৭ রান। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ১৭তম আর পাকিস্তানের বিপক্ষে টানা তৃতীয় সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। আর ৫ উইকেট তুলে নেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। ৩০৮ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৪৫.৪ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে তোলে ২৬৬ রান। ম্যাচ সেরা হন ডেভিড ওয়ার্নার।

বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে দ্বিতীয় খুঁজতে মাঠে নেমেছিল পাকিস্তান। আর ভারতের বিপক্ষে হারের স্মৃতি ভুলে জয়ের ধারায় ফিরতে মরিয়া ছিল অজিরা। বিশ্বকাপের মঞ্চে সব থেকে সফল দল অস্ট্রেলিয়া আর সেই সাথে বর্তমান চ্যাম্পিয়নও তারা। আর ইমরান খানের হাত ধরে ১৯৯২ সালে প্রথম এবং শেষবারের মতো বিশ্বকাপের সোনালি শিরোপা স্পর্শ করে পাকিস্তান।

ওয়ার্নার

বিজ্ঞাপন

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ২২.১ ওভারে ওপেনিং জুটিতে ওয়ার্নার এবং দলপতি অ্যারন ফিঞ্চ তুলে নেন ১৪৬ রান। ব্যক্তিগত ৮২ রানে ফেরেন ফিঞ্চ। তার ৮৪ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল ৬টি চার আর ৪টি ছক্কার মার। অজিরা দ্বিতীয় উইকেট হারায় দলীয় ১৮৯ রানের মাথায়। ইনফর্ম ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ বিদায় নেন ১০ রান করে। এরপর গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে নিয়ে এগুতে থাকেন ওয়ার্নার। ১০ বলে ২০ রান করে বিদায় নেন ম্যাক্সওয়েল।

ইনিংসের ৩৬তম ওভারে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৫তম সেঞ্চুরি স্পর্শ করেন ওয়ার্নার। তার আগে ৫১ বলে ফিফটি পূর্ণ করেন তিনি। শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন তিনি। ৯৮ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ওয়ার্নার। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর এটিই তার প্রথম সেঞ্চুরি। দলীয় ২৪২ রানের মাথায় ওয়ার্নার বিদায় নেওয়ার আগে ১১১ বলে ১১টি চার আর একটি ছক্কায় করেন ১০৭ রান।

শন মার্শ ২৬ বলে করেন ২৩ রান। উসমান খাজা ১৬ বলে করেন ১৮ রান। কোল্টার নাইলের ব্যাট থেকে আসে ২ রান। অ্যালেক্স ক্যারি ২১ বলে করেন ২০ রান।

পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির ১০ ওভারে ৩০ রান দিয়ে তুলে নেন ৫টি উইকেট। দুটি উইকেট পান শাহিন শাহ আফ্রিদি। একটি করে উইকেট পান হাসান আলি, ওয়াহাব রিয়াজ এবং মোহাম্মদ হাফিজ।

৩০৮ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নামেন ইমাম উল হক এবং ফখর জামান। কোনো রান না করেই বিদায় নেন ফখর জামান। ৭৫ বলে সাতটি বাউন্ডারিতে ৫৩ রান করেন ইমাম উল হক। তিন নম্বরে নামা বাবর আজম ২৮ বলে সাতটি চারের সাহায্যে করেন ৩০ রান। ৪৯ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় ৪৬ রান আসে মোহাম্মদ হাফিজের ব্যাট থেকে। শোয়েব মালিক ০, আসিফ আলি ৫ রান করে বিদায় নেন।

আট নম্বরে নেমে ঝড়ো ইনিংস খেলেন হাসান আলি। ১৫ বলে তিনটি চার আর তিনটি ছক্কায় করেন ৩২ রান। দলপতি সরফরাজ আহমেদ আর নয় নম্বরে নামা ওয়াহাব রিয়াজ ৬৪ রানের জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নেন। ইনিংসের ৪৫তম ওভারে রিভিউ নিয়ে ওয়াহাব রিয়াজকে ফিরিয়ে দেয় অস্ট্রেলিয়া। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হওয়ার আগে রিয়াজ করেন ৩৯ বলে ৪৫ রান করেন। তার ইনিংসে ছিল দুটি চার আর তিনটি ছক্কার মার। একই ওভারে ১৪৫ কিলোমিটার গতির বলে মোহাম্মদ আমিরকে বোল্ড করেন মিচেল স্টার্ক। দলপতি সরফরাজ ৪৮ বলে ৪০ রান করেন।

অজি পেসার প্যাট কামিন্স ১০ ওভারে ৩৩ রান খরচায় তুলে নেন তিনটি উইকেট। মিচেল স্টার্ক, রিচার্ডসন দুটি করে উইকেট পান। একটি করে উইকেট তুলে নেন কোল্টার নাইল এবং অ্যারন ফিঞ্চ।

চলতি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজের কাছে শোচনীয় হার পাকিস্তানের, সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে ইংলিশদের বিপক্ষে জয়। পরের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অনাকাঙ্খিত বৃষ্টির কারণে পয়েন্ট ভাগাভাগি। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া শুরু করে আফগানদের হারিয়ে। এরপর উইন্ডিজকে হারিয়ে দ্বিতীয় জয়। আর ভারতের বিপক্ষে হেরে জয়ের ধারা থামে অজিদের। পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়ে এ ম্যাচ দিয়ে তাই ঘুরে দাঁড়ালো অজিরা।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), নাথান কোল্টার-নাইল, প্যাট কামিন্স, উসমান খাজা, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, কেন রিচার্ডসন, স্টিভ স্মিথ, মিচেল স্টার্ক আর ডেভিড ওয়ার্নার।

পাকিস্তান একাদশ: সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), বাবর আজম, ফখর জামান, হাসান আলী, ইমাম-উল-হক, মোহাম্মদ হাফিজ, শাহীন শাহ আফ্রিদি, শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব রিয়াজ আর আসিফ আলী।

বাংলাদেশের দর্শকরা বিশ্বকাপের সব ম্যাচ অনলাইনে কোনো ধরনের সাবস্ক্রিপশন ফি বা চার্জ ছাড়াই দেখতে পারবেন র‍্যাবিটহোলের ওয়েবসাইট www.rabbitholebd.com-এ। এছাড়া র‍্যাবিটহোলের অ্যাপেও দেখা যাবে প্রতিটি ম্যাচ। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/UNCWS2 (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে। তাছাড়া আইওএস ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/vJjyyL (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে।

ম্যাচটির হাইলাইটস দেখতে ক্লিক করুন নিচের লিঙ্কে
https://www.rabbitholebd.com/details/21/78#

সারাবাংলা/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন