শনিবার ১৭ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ২ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ডি আর কঙ্গোতে ১০ মাসে ইবোলায় প্রাণ গেল ১৪ শ’র

জুন ১৩, ২০১৯ | ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ডি আর কঙ্গোতে ভাইরাসবাহিত রোগ ইবোলা পরিস্থিতি ‘ভীতিকর’ বলে উল্লেখ করেছেন সেখানের গবেষকরা। গত বছরের আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত ইবোলায় দেশটিতে অন্তত ১৪ শ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ইবোলায় আক্রান্ত শতকরা ৭০ ভাগ রোগীই মারা গেছেন। খবর বিবিসির।

দাতব্য প্রতিষ্ঠান দ্য ওয়েলকাম ট্রাস্টের পরিচালক ডক্টর জেরেমি ফারার জানান, ইবোলার এই প্রাদুর্ভাব ইতিহাসে দ্বিতীয় ভয়াবহ এবং এটি থামার কোনো লক্ষণ নেই। সেখানে জীবন বাঁচাতে সর্বোচ্চ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সহায়তা প্রয়োজন।

এদিকে পার্শ্ববর্তী দেশ উগান্ডায় ইবোলায় ৫ বছরের এক শিশুর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ইবোলা সরকার জানিয়েছে, আরও সাতটি ইবোলা আক্রান্তের ঘটনা তারা লিপিবদ্ধ করেছে।

এর আগে, পশ্চিম আফ্রিকায় ইবোলা মহামারিতে ২০১৩-১৬ সালে ১১ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন: সাইপ্রাসে ৭ খুন: সিরিয়াল কিলার কি নারী অভিবাসী বিদ্বেষী?

ইবোলা কি?

ইবোলা ভাইরাসবাহিত রোগ। রোগের লক্ষণ হিসেবে হঠাৎ জ্বর, শরীর ব্যথা, গলায় ক্ষত ও শারীরিক দুর্বলতা প্রকাশ পায়। এরপর, বমি, ডায়রিয়া ও রোগীর শরীরে রক্তপাতের মতো ঘটনা ঘটে। রোগীর সংস্পর্শে অথবা তরলের মাধ্যমে এ রোগ ছড়াতে পারে। দেহে পর্যাপ্ত পানির অভাবে ও অভ্যন্তরীণ অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সঠিকভাবে কাজ না করায় রোগীর মৃত্যু হয়।

সারাবাংলা/এনএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন