শুক্রবার ১৯ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৪ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ঠান্ডা মাথায় হবে ক্যারিবীয়ান বধ

জুন ১৬, ২০১৯ | ৯:৫১ অপরাহ্ণ

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে একবার চোখ বুলিয়ে আসলে যে কেউই আগামীকালের ম্যাচটিতে টাইগারদেরই এগিয়ে রাখবেন। শেষ ৯ ম্যাচের ৭টিতেই জয়ের উল্লাসে মাঠ ছেড়েছে লাল সবুজের দল। কিন্তু এটাও সত্যি, ক্রিকেটে সমীকরণ দেখে শেষ সিদ্ধান্তে আসাটা অযৌক্তিক। ফর্মে ফিরতে বা ঘুরে দাঁড়াতে যেখানে একটি ম্যাচই যথেষ্ট। নির্ধারিত দিনে নিজেদের সেরা খেলাটি খেললেই চলে।

সঙ্গত কারণেই বিশ্বকাপে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে এই ম্যাচটিতে পরিসংখ্যান বা অতীত জয়ে নির্ভার থাকার কোনো কারণই দেখছেন না টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা। যেহেতু দলটিতে গেইল, লুইস ও হেটমায়ারদের মতো টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টরা আছেন, সেহেতু ২২ গজের বিশ্বযুদ্ধে দলটির বিপক্ষে ম্যাচ পরিকল্পনা হতে হবে নিখুঁত। আর তার বাস্তবায়নটা ঠান্ডা মাথায় করতে পারলেই কেল্লাফতে।

টাইগার দলপতি জানিয়ে রাখলেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলতে গেলে যে কেউ আগে তাদের ব্যাটিং নিয়ে পরিকল্পনা করে। তাদের যে সামর্থ্য আছে, তারা সবসময় টি-টোয়েন্টি মেজাজেই খেলতে চায়। তারা যখন সফল হবে, তখন মাঠে বোলারদের জন্য কাজটা কঠিন হয়ে যাবে। আমাদের নিজেদের পরিকল্পনায় স্থির থাকতে হবে। যাই হোক, মাঠে যে পরিস্তিতি হবে সেখানে মাথা ঠান্ডা রেখে কাজ করতে হবে। সবার দিন সমান যাবে না, কারো কারো দিন খারাপ যাবে এটাই স্বাভাবিক।’

বিজ্ঞাপন

জেসন হোল্ডারদের বিপক্ষে নিজেদের বোলিং পরিকল্পনার কথা জানাতে গিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘তারা যেহেতু প্রচুর শট খেলবে, আমাদেরও কিছু সুযোগ থাকবে। উইকেট নেয়ার বিকল্প কিছু নেই উইন্ডিজের বিপক্ষে। তাদের মূল বোলিং আক্রমণে যারা আছে তাদের বিপক্ষে আমরা খেলে এসেছি। তাদের বিপক্ষে সাফল্য থাকলেও স্বস্তিতে থাকার সুযোগ নেই। কারণ এটা নতুন একটি ম্যাচ। তারা বোলিং আক্রমণে ভালো করছে। আমাদের ব্যাটসম্যানদের এটা মাথায় রেখেই খেলতে হবে। আমাদের প্রথম চেষ্টা থাকতে হবে আমরা যেন উইকেট নিতে পারি।’

আয়ারল্যান্ডে তিন জাতির টুর্নামেন্টেও বোলিংয়ে এমন পরিকল্পনার নিপুন বাস্তবায়ন দেখিয়েছিল লাল সবুজের দল। তাতে কাজও হয়েছিল বিস্তর। প্রথমবারের মতো কোনো বহুজাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুলেছিল বাংলাদেশ। সেই ধারাবাহিকতা বিশ্বকাপেও কী দেখা যাবে?

সংবাদ মাধ্যমের করা এমন প্রশ্নে মাশরাফির উত্তর, ‘দ্বিপাক্ষিক সিরিজে হয়তো এগুলো কাজ করে। এই ধরণের টুর্নামেন্টে আপনি একেকদিন একেক দলের বিপক্ষে খেলছেন। ফলে, একই রকম মাইনড সেট আপটা থাকে না। তাই এভাবেই চিন্তা করতে হবে। উইন্ডিজ দল যেকোনো ধরণের ক্ষতি করতে পারে। আমাদের সেরাটাই খেলতে হবে। ওদের বিপক্ষে আগের ৯ ম্যাচের ৭টা জিতেছি। এর মানে এই নয় যে আমরা এখানেও সহজেই জিতে যাব।’

টন্টনের সমারসেট কাউন্টি গ্রাউন্ডে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়।

বাংলাদেশের দর্শকরা বিশ্বকাপের সব ম্যাচ অনলাইনে কোনো ধরনের সাবস্ক্রিপশন ফি বা চার্জ ছাড়াই দেখতে পারবেন র‍্যাবিটহোলের ওয়েবসাইট www.rabbitholebd.com-এ। এছাড়া র‍্যাবিটহোলের অ্যাপেও দেখা যাবে প্রতিটি ম্যাচ। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/UNCWS2 (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে। তাছাড়া আইওএস ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/vJjyyL (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন