শনিবার ২০ জুলাই, ২০১৯ ইং , ৫ শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

অথচ নুসরাত জাহানের বিয়ের চিত্রনাট্য ছিল অন্যরকম

জুন ২০, ২০১৯ | ১:৫৯ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

জন্ম, মৃত্যু ও বিয়ে—বলা হয়ে থাকে এই তিন বিষয়ে মানুষের হাত নেই। সৃষ্টিকর্তার ইশারাতেই হয় এসব কিছু। আর তাইতো নুসরাত জাহান গাঁটছাড়া বাঁধলেন নিখিল জৈন নামের এক ব্যবসায়ির সাথে। অথচ টালিগঞ্জের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীর বিয়ে হবার কথা ছিল কাদের খান নামের এক যুবকের সাথে। যার সাথে কলেজ জীবন থেকে প্রেম ছিল। সেই প্রেম এগোচ্ছিল বিয়ের পিঁড়ি অব্দি। কিন্তু বিধি বাম। ধর্ষণ কাণ্ডে কাটা পড়ে তাদের সম্পর্ক।

ঘটনা ২০১২ সালের। নুসরাত জাহান তখন টালিগঞ্জ চলচ্চিত্রে কেবল পা রেখেছেন। অভিনয় করেছেন একটি ছবিতে। কথা ছিল সিনেমার ক্যারিয়ারটা গুছিয়ে নিয়ে দীর্ঘ দিনের প্রেমিক কাদের খানের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন। সেই লক্ষ্যে তারা বাগদানও সেরে ফেলেছিলেন। ঠিক তখনই কলকাতার পার্ক স্ট্রিটে এক গণধর্ষণের ঘটনায় নাম উঠে আসে কাদের খানের।

যদিও ওই ঘটনার পর নুসরাত জাহান চেষ্টা করেছিলেন কাদের খানতে বাঁচানোর। অভিযোগ ওঠে, ঘটনার পর কাদের খানকে ‍মুম্বাইতে পালাতে সাহায্য করেন নুসরাত। পরবর্তীতে সেখানে গিয়েও কাদের খানের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। যে হোটেলে তারা ছিলেন সেই হোটেলের রেজিস্ট্রার খাতায় তার প্রমাণও মিলেছে।

বিজ্ঞাপন

এভাবে বেশি দিন সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা কষ্টকর বলে ফেরারি কাদের খানের সঙ্গে একসময় সম্পর্ক ছিন্ন করেন নুসরাত। এরপর ভিক্টর ঘোষ নামে একজনের সাথে লিভি ইনের গুজব উঠেলেও তার সত্যতা পাওয়া যায়নি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো এ নিয়ে অনেক প্রতিবেদন প্রকাশ করলেও নুসরাত জাহান মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন।


আরও পড়ুন :  জন্মশহরে হচ্ছে আইয়ুব বাচ্চু চত্বর, থাকবে রূপালি গিটারও


তবে নিখিল জৈনের সাথে তার সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে সোজাসাপ্টা ছিলেন নুসরাত। কোনো রাখঢাক রাখেননি। এমনকি বিয়ে করতে তুরস্কে রওয়ানা দেয়ার আগে তিনি এয়ারপোর্টে সংবাদকর্মীদের ডেকেছিলেন।

নুসরাত জাহানের কলকাতার বাসায় গায়ে হলুদ শেষে উড়াল দেন তুরস্কের বোদরুমে। সেখানে বুধবার (১৯ জুন) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেন তিনি। যার ছবি নুসরাত জাহান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন, যা মূহুর্তেই ভাইরাল হয়ে গেছে।

বিয়ের অনুভূতি জানতে হোয়াটসঅ্যাপে নুসরাত জাহানকে যোগাযোগ করা হলে তিনি এক কথায় জানান ‘ডিভাইন’ অর্থ্যাৎ স্বর্গীয়। তার প্রেরিত এক শব্দের অনুভূতি বুঝিয়ে দেয় যে তিনি, জীবনের সেরা সময় পার করছেন।

এদিকে প্রকাশিত ছবিতে নুসরাতের গায়ে লাল রঙের লেহেঙ্গা জড়ানো, ছিল গহনা আর গলায় ফুল। আর বরবেশে নিখিল জৈন ছিলেন অফ হোয়াইট রঙ্গের শেরওয়ানি পরে। মুখে মিষ্টি হাসি মেখে দুজন দুজনের দিকে তাকিয়ে ছিল মুগ্ধ হয়ে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যায়, এই বিয়েতে একমাত্র আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন নুসরাতের ঘনিষ্ঠ বন্ধু মিমি চক্রবর্তী। যদিও, তিনি অন্য ঘনিষ্ঠজনদের নিমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, কিন্তু কাজের ব্যস্ততার কারণে যেতে পারেননি তারা।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হলেও দেশে ফিরে আগামী ২৫ জুন তারা আইনসম্মতভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবেন। সেসময় বিয়ে পরবর্তী একটি সংবর্ধনার আয়োজন করা হবে বলেও জানা গেছে।

সারাবাংলা/আরএসও/পিএম


আরও পড়ুন :

.   শিল্পকলায় সাধুসঙ্গ

.   শাকিব খানের বিকল্প নেই। হবে? কবে…?

.   রোশন পরিবারের চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস

.   সাবেকের ভূমিকায় বর্তমান


আরও দেখুন ঃ  আমার জন্মই হয়েছে সঙ্গীতের জন্য: বাপ্পা মজুমদার [ভিডিও স্টোরি]

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন