শুক্রবার ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

আইপিএলকে প্রমাণের কিছু নেই: সাকিব

জুন ২৫, ২০১৯ | ২:১৪ পূর্বাহ্ণ

বিজ্ঞাপন

আইপিএলের গত আসরে কার্যত সাকিব আল হাসনকে বসিয়েই রাখা হয়েছিল। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের রিটেইনি প্লেয়ার হয়েও বিদেশি ক্রিকেটারের কোটায় খেলেছিলেন মাত্র ৩টি ম্যাচ। যদি বলা হয় তাকে সুযোগ দেওয়া হয়নি, সম্ভবত ভুল হবে না।

তাহলে কী সেই খেদ ও বঞ্চনাকে পুঁজি করেই বিশ্বকাপে রান ও উইকেটের রথ ছুটিয়ে চলেছেন লাল সবুজের এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার? দেখিয়ে দিতে চান আইপিএলকে? হয়তো অনেকের মনেই এই প্রশ্নটি বারবার উঁকি দিচ্ছে।

রোজ বোল স্টেডিয়ামে আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ভারতীয় এক সাংবাদিকও সেই প্রশ্নটিই সাকিবকে করে বসলেন। অবশ্য জবাবটি তিনি দিয়েছেন বেশ কৌশলে, ‘আমি ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। কিন্তু আমার প্রমাণের কিছুই নেই। ভালো পারফরম্যান্সের জন্য যে প্রস্তুতির প্রয়োজন ছিল বিশ্বকাপের আগে আমি তা করেছি। সৌভাগ্যবশত এটা আমাকে সাহায্য করছে।’

বিজ্ঞাপন

চলুন এক নজরে দেখে আসি চলতি বিশ্বকাপে কী কী করলেন সাকিব?
** ৬ ম্যাচে দুটি সেঞ্চুরি ও ৩টি ফিফটিতে ৪৭৬ রান নিয়ে রান সংগ্রাহকের তালিকায় সবার শীর্ষে।
** বোলিংয়ে এক নাম্বার হতে না পারলেও ৬ ম্যাচে ১০ উইকেট নিয়ে সেরা বোলারদের তালিকায় আছেন ৯ নাম্বারে।

এবার দেখে নেওয়া যাক আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৫১ রান ও ৫ উইকেট শিকারের পরে কোন কোন রেকর্ডের মালিক তিনি হলেন?
** ক্রিকেট দুনিয়ার দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে একই ম্যাচে অর্শতক ও পাঁচ উইকেট নিলেন ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ এই অলরাউন্ডার। যা এতদিন দখলে রেখেছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং। ২০১১ বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ফিফটি ও পাঁচ উইকেট নেওয়া কীর্তি গড়েছিলেন এই ভারতীয় অলরাউন্ডার।
** তিনিই দেশের প্রথম ক্রিকেটার যিনি এই ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপে এক হাজার রান ও ৩০ উইকেটের কীর্তি গড়লেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে বিশ্বকাপে তার রান ১ হাজার ১৬ আর উইকেট ৩৩টি।
** এদিন ব্যাট হাতে ৫১ রান করার পর করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং; ২৯ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট। বিশ্বকাপে এটাই বাংলাদেশের সেরা বোলিং। তার আগে ২০১১ বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ২১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে শীর্ষে ছিলেন শফিউল ইসলাম।

এখানেই শেষ নয়। বিশ্বের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একই বিশ্বকাপে সেঞ্চুরি ও পাঁচ উইকেট নিয়েছেন এই বাঁহাতি। ১৯৮৩ সালে এই কীর্তি গড়েছিলেন ভারতের কপিল দেব। ২০১১ তে কপিলের পাশে নাম লেখান যুবরাজ।

বাংলাদেশের দর্শকরা বিশ্বকাপের সব ম্যাচ অনলাইনে কোনো ধরনের সাবস্ক্রিপশন ফি বা চার্জ ছাড়াই দেখতে পারবেন র‍্যাবিটহোলের ওয়েবসাইট www.rabbitholebd.com-এ। এছাড়া র‍্যাবিটহোলের অ্যাপেও দেখা যাবে প্রতিটি ম্যাচ। অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/UNCWS2 (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে। তাছাড়া আইওএস ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করতে পারবেন https://goo.gl/vJjyyL (শুধুমাত্র বাংলাদেশ) এই লিংকে ক্লিক করে।

** সাকিবের ৪৫তম ফিফটি, চলতি বিশ্বকাপে পঞ্চম ফিফটি প্লাস
** যে তালিকায় সাকিব ১৯তম
** কপিলকে টপকে গেলেন সাকিব
** যে কীর্তিতে সাকিব অনন্য

সারাবাংলা/এমআরএফ/এমআরপি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন